ভারতের সঙ্গে লড়াইয়ে সীমান্তে সেনা পাঠিয়ে চিনের পাশে দাঁড়াচ্ছে পাকিস্তান? গিলগিট বালটিস্তানে ২০ হাজার সৈন্য পাঠিয়েছে ইসলামাবাদ

একদিকে চিনের সঙ্গে ভারতের দফায় দফায় বৈঠক চলছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার কথা বলছে দুপক্ষই। অন্যদিকে শোনা যাচ্ছে, পাকিস্তানের সঙ্গে যোগসাজশ চলছে চিনের। ভারত-চিনের সংঘাতে চিনের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে যাচ্ছে পাক সেনা।

সূত্রের খবর, গিলগিট-বালটিস্তান এলাকার দিকে ২০ হাজার সৈন্য পাঠিয়েছে পাকিস্তান। চিনা সেনার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার জন্য এই ২০ হাজারের অতিরিক্ত বাহিনী লাদাখ অঞ্চলের দিকে পাঠানো হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, চিন-পাকিস্তান মিলে ভারতের সঙ্গে টু ফ্রন্ট ওয়ারের দিকে যেতে চাইছে। বালাকোট এয়ার স্ট্রাইকের সময় যে সংখ্যক সৈন্য মোতায়েন করেছিল ইসলামাবাদ এবার তার চেয়েও বেশি সংখ্যক সেনা পাঠানো হচ্ছে চিনকে সাহায্য করতে। এমনকী ২৪ ঘণ্টা তার উপর কড়া নজর রাখছে পাকিস্তান রাডার।

ইকনমিক টাইমসে প্রকাশিত এক রিপোর্ট অনুযায়ী, পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই-এর সঙ্গে গোপনে বৈঠক চলছে চিনের। পাকিস্তানের কুখ্যাত ব্যাট বাহিনী দিয়ে ভারতে হামলা চালানোর পরিকল্পনাও করা হচ্ছে বলে খবর।

এদিকে পাকিস্তান আবার কাশ্মীরের দিকে দলে দলে জঙ্গি পাঠাচ্ছে বলে খবর। সম্প্রতি অন্তত ১২০ জন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে ভারতীয় সেনার হাতে। এদের বেশির ভাগই পাক জঙ্গি বলে জানা গিয়েছে। শোনা যাচ্ছে, ভারতীয় সেনার উপর হামলা চালিয়ে ভারতের পরিস্থিতি টালমাটাল করে দেওয়ার ছক কষছে দুই দেশ।

এদিকে গত মঙ্গলবার ভারত ও চিনের মধ্যে ১০ ঘণ্টা ধরে চলে কমান্ডার স্তরের বৈঠক। চিন যে অংশের দাবি করতে শুরু করেছে, তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ভারত। গালওয়ান ভ্যালি ও প্যাংগং লেক সহ অন্যান্য জায়গা থেকে দ্রুত সেনা সরানোর কথা বলেছে ভারত। কিন্তু এর মধ্যে সমানতালে চলছে চিন ও পাকিস্তানের যোগসাজশ প্রক্রিয়া।

ইকনমিক টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত সপ্তাহের শুরুতে একটি চিনা রিফুয়েলার বিমান স্কার্দুতে নামার পর পাকিস্তান-অধিকৃত কাশ্মীরের এয়ারবেসে কড়া নজর রাখছে ভারত। পূর্ব লাদাখের বিপরীতে চিনা বিমানের তৎপরতা বেড়েছে।

এর মধ্যে গিলগিট-বালটিস্তান এলাকার দিকে ২০ হাজার সৈন্য পাঠিয়ে চিনের পাশে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তান।

Comments
Loading...