সুপ্রিম কোর্টে জয় রাজ্যের, পঞ্চায়েতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জেতা আসনে ফল ঘোষণা করতে পারবে কমিশন

পঞ্চায়েত মামলায় জোর ধাক্কা খেল বিরোধীরা। পঞ্চায়েত ভোটে যে ৩৪ শতাংশ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করেছিল শাসক দল সেখানে ফের ভোটের কোনও প্রশ্ন নেই বলে শুক্রবার জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। পাশাপাশি, অনলাইনে যে মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন বিরোধীরা তাও খারিজ করে দিয়েছে শীর্ষ আদলত। এর ফলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জেতা আসনগুলিতে ফল ঘোষণায় আর বাধা থাকল না পঞ্চায়েত দফতরের। কয়েক দিনের মধ্যেই রাজ্যজুড়ে পঞ্চায়েত বোর্ড গঠনের কাজ শুরু হওয়ার কথা। তার আগে এই রায় স্বাভাবিকভাবেই স্বস্তি দিল রাজ্য সরকারকে।
মে মাসে মাঝামাঝি পঞ্চায়েত ভোটের সময় থেকেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শাসক দলের জেতা আসন নিয়ে বারবারই সরব হয়েছে বিরোধীরা। এই নিয়ে সিপিএম, কংগ্রেস এবং বিজেপি একযোগে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেছিল। মামলার জন্য ভোটের দিনও বদল করতে হয় পঞ্চায়েত দফতর এবং রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে। হাইকোর্ট পেরিয়ে সেই মামলা গিয়ে পৌঁছোয় সুপ্রিম কোর্টে। এর আগে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছিল, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জেতা প্রায় ২০ হাজার আসনে ফল ঘোষণা করা যাবে না। তারপর টানা শুনানি হয় শীর্ষ আদালতে। শুক্রবার রায়ে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দেয়, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তৃণমূলের জেতা আসনগুলিতে ফল ঘোষণা করতে পারবে কমিশন। পাশাপাশি ই-মেল করে বিরোধীরা যে মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন বিরোধীরা তাও খারিজ করে দিয়েছে আদালত।
রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ এবং আইনজীবী কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানান, রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে আদালতে যে সওয়াল করেছিল তাকেই স্বীকৃতি দিয়েছে আদালত। রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। যদিও এই রায় যথেষ্টই বড় ধাক্কা বিরোধীদের কাছে। বিজেপি এবং সিপিএম প্রাথমিকভাবে এই রায়ের বিরোধিতা করেছে।

Comments
Loading...