পুরুলিয়ায় সংঘর্ষ। খুন ২, গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ৪। শুরু রাজনৈতিক চাপানউতোর।

পুরুলিয়ার কেন্দাপাড়া থানা এলাকার ভান্ডারপুরায় তুরুহুলু গ্রামে সংঘর্ষে দুই ব্যক্তির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ফের ছড়াল চাঞ্চল্য। পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার দুপুরে গণ্ডগোলের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, ছয় ব্যক্তি রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে আছেন। তাঁদের হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। পুরুলিয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর দীপক মাহাতো (৪০) এবং তাঁর বাবা লালমোহন মাহাতোকে  (৫৮) মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি বিরিঞ্চি মাহাতো ( ৪৮), গুরুপদ মাহাতো  (৪৩), রামকৃষ্ণ মাহাতো (২২) এবং অঞ্জনা মাহাতো ( ৭০)। এই ঘটনায় পান্নালাল মাহাতো নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহতদের বাড়ির সামনে বিজেপির পতাকা লাগানো ছিল। তাঁরা এলাকায় বিজেপি সমর্থক বলে পরিচিত।
সূত্রের খবর, এই ঘটনার পর স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব অভিযোগের আঙুল তুলেছে তৃণমূলের দিকে। তবে এই ঘটনার পিছনে কোনও পারিবারিক গণ্ডগোল আছে, না রাজনৈতিক যোগসূত্র রয়েছে তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। পুরুলিয়ার বলরামপুরে পঞ্চায়েত ভোটের আগে দু’জন বিজেপি কর্মীর অস্বাভাবিক মৃতুকে কেন্দ্র করে তৈরি হয়েছিল তীব্র চাঞ্চল্য। উল্লেখ্য, আগামী ১৬ই জুলাই মেদিনীপুরে সভা করতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার আগে কেন্দাপাড়ায় এই দু’ই ব্যক্তির খুন এবং এই সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে নতুন রাজনৈতিক চাপানউতোর।
Comments
Loading...