রঘুরাম রাজন: সেনসেক্সের উত্থান দেখে ভুল করবেন না, সবে তো সমস্যার শুরু

চারচাকার গাড়ি বিক্রির বহর দেখে অর্থনৈতিক পরিস্থিতি বোঝা সম্ভব নয়, বললেন রাজন

অতিমারির আগে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা যে জায়গায় ছিল, সেখানে পৌঁছতেই ২০২২ সাল লেগে যাবে। গাড়ি বিক্রির বাজার আর সেনসেক্সের উত্থান দেখে ভুল করবেন না। এমনই মন্তব্য করলেন RBI-এর প্রাক্তন গভর্নর তথা বিখ্যাত অর্থনীতিবিদ রঘুরাম রাজন।

সম্প্রতি দ্য ইকনমিক টাইমস – কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রাজন বলেন, ৫০ হাজার মার্ক ছুঁয়ে ফেলা সেনসেক্স দেখে কিংবা গাড়ি বিক্রির বহর দেখে অর্থনীতি ভালো হচ্ছে এই ধারণা করাটাই ভুল। তাঁর কথায়, চার চাকার গাড়ির চাহিদা বৃদ্ধি পেলেও মোটর সাইকেলের সেল কিন্তু সেভাবে হয়নি। তাই দেশের ধনী বা উচ্চবিত্তদের চাহিদা বৃদ্ধি দিয়ে অতিমারি পরিস্থিতিতে অর্থনৈতিক অবস্থা বোঝা সম্ভব নয়। তিনি যোগ করেন, উৎপাদন শিল্পে বড় কোম্পানিগুলি আস্তে আস্তে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে এ কথা ঠিকই। কিন্তু ছোট সংস্থা এখনও ব্যবসায় ফিরতে পারেনি। চিন্তা সেখানেই। তাই আপাতত অর্থনীতিতে যে সদর্থক দিক দেখা যাচ্ছে তা ক্ষণস্থায়ী বলে মত রাজনের।

রঘুরম রাজনের কথায়, অতিমারি পরিস্থিতিতে প্রচুর ক্ষতি হয়েছে এবং এখন কিছু ক্ষেত্রে তা বোঝাও যাচ্ছে। আমি স্টক এক্সচেঞ্জ বিশেষজ্ঞ নই যে বলতে পারব যে কোন সময়ে কতটা উত্থান হবে সেনসেক্সের। তবে চাহিদা ও ফল দেখে যা মনে হচ্ছে অর্থনীতিতে এই সদর্থক আভাস ক্ষণস্থায়ী। তিনি বলেন, ভারতের মোটামুটি ধনী শ্রেণি চারচাকার গাড়ি কেনেন। নিম্ন মধ্যবিত্ত ও গরিব শ্রেণির মধ্যে দু’চাকার মোটর বাইক কেনেন। এখন চারচাকার গাড়ি কত বিক্রি হচ্ছে সেই দেখে বাজারের ভালো-খারাপ দিক বিচার করা যায় না।

সংশ্লিষ্ট সংবাদমাধ্যমকে রঘুরাম রাজন আরও জানান, আগামী বছরের তৃতীয় ত্রৈমাসিকের মধ্যে শিল্পোন্নত দেশগুলির বেশিরভাগ মানুষ করোনা ভ্যাকসিন পেয়ে যাবেন বলে মনে করছি। তারপর হয়ত হাসপাতাল, রেস্তরাঁ ইত্যাদি ফের পুরোপুরি ব্যবসায় ফিরবে। কিন্তু যেটা ভাবাচ্ছে, তা হল যদি করোনার পরের ঢেউ আসে, তা সামাল দিতে কতটা প্রস্তুত আমরা এবং কী কী ভাবে তা প্রতিরোধ করব।

রাজন যোগ করেন, বাজারে চাহিদার ওপর কী প্রভাব হবে এবং অর্থনীতির উপর কতটা দীর্ঘমেয়াদি ফল রাখবে তা এখনই বলে দেওয়া উচিত হবে না। তবে পরিকাঠামো খাতে যে ক্ষতি হয়েছে তা মানুষের প্রাত্যহিক জীবনের উপর পড়ছে। এখন সেনসেক্সের উত্থান দেখে কেউ বলবেন সমস্যা মিটে গিয়েছে, আমি বলব না, সবে শুরু হয়েছে, মন্তব্য প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদের।

Comments
Loading...