রাজ্যসভা টিভি থেকে বিনা নোটিসে ছাঁটাই ৩৭ জন কর্মী, খরচ কমানো উদ্দেশ্য নাকি দুই দফতরের ঠান্ডা লড়াই, প্রশ্ন উঠছে

করোনার দোহাই দিয়ে দেশের সংবাদমাধ্যমে ছাঁটাই চলছিল। এবার সেই তালিকায় নাম ঢোকালো সরকারি রাজ্যসভা টিভি (RSTV)। নিউজলন্ড্রির প্রতিবেদনে দাবি, সেপ্টেম্বরের শেষে রাজ্যসভা টিভি থেকে বিনা নোটিসে ছাঁটাই হয়েছেন ৩৭ জন কর্মী। কর্মীরা প্রায় সবাই রাজ্যসভা টিভির জন্মলগ্ন থেকে এখানে কাজ করছেন বলে খবর। কাজ ফিরিয়ে দিতে ছাঁটাই হওয়া কর্মীরা চিঠি লিখেছেন উপ রাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডুকে।

RSTV ও লোকসভা টিভি মিলিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ বছরের শেষ নাগাদ আত্মপ্রকাশ করতে পারে সংসদ টিভি নামে একটিই চ্যানেল। যেখানে সংসদের উচ্চ ও নিম্ন কক্ষের সমস্ত সম্প্রচার হবে। সূত্রের খবর, এই নয়া চ্যানেলের রাশ হাতে রাখতে প্রধান মন্ত্রীর দফতরের সঙ্গে বিবাদ চলছে রাজ্যসভা সচিবালয়ের। সেই সূত্রেই কি ছাঁটাই হতে হল বহু পুরনো ৩৭ জন কর্মীকে? প্রশ্ন তুলেছে নিউডলন্ড্রি। অথচ মার্চ মাসে স্বয়ং প্রধান মন্ত্রী মোদী ঘোষণা করেছিলেন, কোনও কর্মীকে ছাঁটাই করা যাবে না।

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, ছাঁটাই হওয়া কর্মীরা প্রত্যেকেই ছিলেন চুক্তির ভিত্তিতে নিযুক্ত। কিন্তু রাতারাতি তাঁদের চুক্তি বাতিল করে ছাঁটাই করে দেওয়ার ঘটনা আগে কখনও ঘটেনি। ২০১১ সালে RSTV এর জন্মলগ্ন থেকে কাজ করছেন সৈয়দ মহম্মদ ইরফান। এই চ্যানেলে ‘গুফ্তাগু’ নামে একটি জনপ্রিয় শো সঞ্চালনা করেছেন এক দশকের বেশি সময় ধরে। তিনি বলছেন, আজ RSTV যে উচ্চতায় পৌঁছেছে তাকে সেখানে নিয়ে যাওয়ার পিছনে আমাদের ঘাম-রক্ত মিশে আছে। ছাঁটাই করার আগে একবার জানানো হল না বিশ্বাস করতে কষ্ট হয়।

Comments
Loading...