বিতর্কের মাঝেই উচ্চমাধ্যমিকে প্রথম রুমানা হলেন কন্যাশ্রীর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর, ঘোষণা জেলা শাসকের

উচ্চ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশের পর তাঁকে নিয়ে বিতর্কে তোলপাড় গোটা রাজ্য। আর এসবের মধ্যেই তাঁর মুকুটে নয়া পালক।

মেয়েদের জন্য রাজ্য সরকারের প্রকল্প কন্যাশ্রীর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর করা হচ্ছে উচ্চ মাধ্যমিক প্রথম রুমানা সুলতানাকে। উচ্চ মাধ্যমিক ৫০০ তে ৪৯৯ পেয়ে রাজ্যে প্রথম স্থান লাভ করেছেন।

শুক্রবার মুর্শিদাবাদ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে রুমানাকে তাঁর সাফল্যের জন্য সংবর্ধনা দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুর্শিদাবাদের জেলাশাসক, জেলা পুলিশ সুপার। ওই অনুষ্ঠান থেকে জেলা শাসক শরদ কুমার দ্বিবেদী জানান, রুমানার এই সাফল্য রাজ্যের বাকি মেয়েদের অনুপ্রাণিত করবে। রাজ্য সরকারের কন্যাশ্রী প্রকল্পের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর করা হবে রুমানাকে।

এদিন অনুষ্ঠানে জেলার পুলিশ সুপারও বলেন, রুমানার জন্য গোটা মুর্শিদাবাদ জেলার নাম উজ্জ্বল হয়েছে। রুমানার পাশাপাশি জেলার অন্যান্য কৃতি ছাত্রদেরও এদিন সংবর্ধনা জানানো হয় জেলা প্রশাসনের তরফে।

উল্লেখ্য উচ্চ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশের সময় উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান মহুয়া দাস রুমানার নামের পরিবর্তে বলেন, উচ্চ মাধ্যমিকে একক ভাবে সর্বচ্চ নাম্বার পেয়েছে এক মুসলিম কন্যা। মহুয়ার এই মন্তব্যের জেরে তমূল বিতর্ক তৈরি হয়। নেট নাগরিকদের একাংশ মহুয়ার এই মক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেন। এই ঘটনার জেরে শুক্রবার শিক্ষক মুক্তি ঐক্য নামে এক সংগঠন সংসদের বাইরে বিক্ষোভ দেখায়। তাঁদের দাবি এই মন্তব্যের জন্য মহুয়া দাসের পদত্যাগ করা উচিত।

Comments
Loading...