‘মি টু’ বিতর্কে নাম জড়াবে অমিতাভেরও, চমকে দেওয়া ট্যুইট স্বপ্না ভাবনানির

সম্প্রতি ভারতে শুরু হয়েছে ‘মি টু’ মুভমেন্ট। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের সাথে ঘটে যাওয়া যৌন হেনস্থা, কর্মস্থলে অভব্যতা নিয়ে মুখ খুলছেন একের পর এক মহিলা। ইতিমধ্যেই তাতে নাম জড়িয়েছে বিখ্যাত অভিনেতা, গায়ক, সাংবাদিক, পরিচালকদের। কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে চার সদস্যের বিশেষ কমিটি গড়া হচ্ছে, গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখা ও কী করা যায় তা নিয়ে কেন্দ্রকে পরামর্শ দেওয়ার জন্য। কোনও অভিযুক্তকে ছাড়া হবে না বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণমন্ত্রী মানেকা গান্ধীও। এমতাবস্থায় ‘মি টু’ নিয়ে বোমা ফাটালেন মুম্বইয়ের সেলিব্রেটি হেয়ার স্টাইলিস্ট ও ‘বিগ বস’ টেলিভিশন শোয়ের প্রাক্তন প্রতিযোগী স্বপ্না ভাবনানি। তাঁর তির সরাসরি অমিতাভ বচ্চনের বিরুদ্ধে। দুটি ট্যুইট করেছেন এ বিষয়ে স্বপ্না। যা সামনে আসতেই শুরু হয়েছে আলোচনা।
ট্যুইটে স্বপ্না লিখেছেন, ‘খুব শীঘ্রই অমিতাভের আসল চেহারা মানুষের সামনে আসবে।’
এপ্রসঙ্গে দুটি তথ্য আগে দিয়ে রাখা ভালো। সপ্তাহ দুয়েক আগে যেদিন অভিনেত্রী  তনুশ্রী দত্ত অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে প্রায় দশ বছর আগে তাঁকে যৌন হেনস্থা করার অভিযোগ এনেছিলেন, তারপর অমিতাভ বচ্চনের প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেছিলেন, তিনি নানা পাটেকরও নন, তনুশ্রী দত্তও নন। তাই এই নিয়ে কিছু বলবেন না তিনি। বলিউডে যৌন হেনস্থার মতো এত গুরুতর অভিযোগে অমিতাভের এই দায়সারা প্রতিক্রিয়া সেবার অনেককেই অবাক করেছিল। কিন্তু সম্প্রতি  নিজের জন্মদিনে এক ইন্টারভিউয়ে অমিতাভ জানান, কোনও মহিলার সাথে এইরূপ ঘটনা ঘটা কাম্য না। কর্মস্থলে হেনস্থা মেনে নেওয়া যায় না। অভিযোগ উঠলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।
অমিতাভের এই বক্তব্যকে তীব্র কটাক্ষ করেছেন স্পষ্ট বক্তা হিসাবে পরিচিত স্বপ্না। অমিতাভের এই কথাকে  মিথ্যা দাবি করে স্বপ্নার ট্যুইট, ‘স্যার, আপনার ‘পিঙ্ক’ ছবি রিলিজ হয়ে চলেও গেছে, এবার আপনার পরিচ্ছন্ন ভাবমূর্তিও গেল বলে। আঙুলের নখ কম পড়লে, হাত কামড়াতে থাকুন।’ স্বপ্নার দাবি, ব্যক্তিগতভাবে অনেক মহিলার কাছ থেকে তিনি অমিতাভ বচ্চনের বিষয়ে অনেক কিছু শুনেছেন, আশা করছেন, খুব শীঘ্রই সে সব সামনে আসবে।
Comments
Loading...