বিধায়ক পদ খারিজের মামলায় বিজেপির পিটিশন গ্রহণ অধ্যক্ষের; মুকুলের বক্তব্যও শোনা হবে, জানালেন বিমান ব্যানার্জি

মুকুল রায়ের বিধায়ক পদ খারিজের শুনানি শেষে। এদিন অধ্যক্ষের ঘরে ২৫ মিনিট ধরে শুনানি হয়। বিধায়ক পদ খারিজের দাবিতে বিজেপির পিটিশন গ্রহণ করেছেন বিমান ব্যানার্জি। শুনানিতে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীও উপস্থিত ছিলেন।

অধ্যক্ষ বিমান ব্যানার্জি জানান, বিরোধী দলের দাবি শোনা হয়েছে, এ ব্যাপারে মুকুল রায়েরও বক্তব্য জানা হবে। পরবর্তী শুনানি ১৭ আগস্ট।

এদিন শুনানি শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে শুভেন্দু অভিযোগ করেন, এ রাজ্যে ১০ বছরে একবারও দলত্যাগী আইন কার্যকারী হয়নি। একজন বিধায়কের দলত্যাগ নিয়ে ২৩ বার শুনানি হয়েও মামলার নিষ্পত্তি হয়নি। নন্দীগ্রামের বিধায়ক এদিন ফের একবার বলেন, অধ্যক্ষের প্রতি আমাদের আস্থা রয়েছে। তবে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যাতে এই মামলার ফয়সলা হয় তার দাবি নিয়ে আমরা আগস্টেই আদালতে যাওয়ার চিন্তা ভাবনা করছি।

টানা বৃষ্টিতে কলকাতায় জল জমা নিয়েও এদিন রাজ্য সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন তিনি। বলেন, কলকাতায় সবকটি আসনই তো তৃণমূল জিতেছে। এখানকার মানুষ বুঝুক কাদের ভোট দিয়ে এনেছে। তাঁর কটাক্ষ, আমফনের পর দুয়ারে গঙ্গা ছিল, এখন দুয়ারে নর্দমা। তিনি আরও বলেন, লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের আগেই দুয়ারে নর্দমা প্রকল্প শুরু হয়ে গিয়েছে। মমতার দিল্লি সফর নিয়েও এদিন তৃণমূল নেত্রীকে খোঁচা দেন তিনি। বলেন, এর আগেও করেছেন। লাভ কিছু হবে না। শুভেন্দুর দাবি, ২০২৪ নরেন্দ্র মোদীর প্রতিই আস্থা রাখবেন দেশবাসী।

Comments
Loading...