পূর্ব রেলের নিউ কয়লাঘাটা বিল্ডিং-এ আগুন, ঝলসে মৃত ৯  

মৃতদের পরিবার পিছু ১০ লক্ষ টাকা এবং একটি করে সরকারি চাকরি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন মমতা ব্যানার্জি

সোমবার সন্ধে নাগাদ স্ট্র্যান্ড রোডের নিউ কয়লাঘাটা বিল্ডিং-এ তেরো তলায় আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যেই বিধ্বংসী আগুন ছড়িয়ে পরে। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে এই ঘটনায়। মৃতদের মধ্যে একজন রেলের আধিকারিক, চারজন দমকল কর্মী, হেয়ার স্ট্রীট থানার অ্যাসিসট্যান্ট সাব ইন্সপেক্টর এবং একজন আরপিএফ রয়েছেন।  

আগুন লাগার কিচ্ছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকল। ১০ ঘন্টার চেষ্টায় আগুন এখন নিয়ন্ত্রণে। জানা যাচ্ছে, আগুন লাগার পরেও বিল্ডিং-এ বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করা হয়নি। দমকল কর্মীরা লিফ্টে করে ১৩ তলায় পৌঁছান। লিফ্টের দরজা খোলার সঙ্গে সঙ্গেই বিদ্যুতের ঝলকের মত আগুন ছড়িয়ে পরে। আর তার জেরেই এই দুর্ঘটনা। 

এদিকে, পূর্ব রেলের অনলাইন টিকিট বুকিংয়ের সার্ভার রুম বহুতলের ১২ তলায় রয়েছে। এই সার্ভার রুম আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে। যার জেরে ব্যাহত অনলাইন টিকিট বুকিং ব্যবস্থা।  

[আরও পড়ুন- মঙ্গলেই নন্দীগ্রামে মমতা, বুধে মনোনয়ন, করতে পারেন জোড়া পদযাত্রা]

রাতে ঘটনাস্থলে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি, দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু। ছিলেন পুর মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। মৃতদের পরিবার পিছু ১০ লক্ষ টাকা এবং একটি করে সরকারি চাকরি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন মমতা ব্যানার্জি। সেই সঙ্গে রেলের তরফে অসহযোগিতার অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূল নেত্রী। দমকলের তরফে বিল্ডিং-এর ম্যাপ চাওয়া হলেও পাওয়া যায়নি বলে জানান তিনি। এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে মামলা রুজু করল কলকাতা পুলিশ। হেয়ার স্ট্রিট থানায় এই মামলা রুজু করা হয়। রেলের তরফ থেকেও তদন্তের জন্য কমিটি তৈরী করা হয়েছে।                                         

Comments
Loading...