১১১ জন কৃষকের পর বারাণসীতে মোদীকে চ্যালেঞ্জ সাসপেন্ডেড বিএসএফ জওয়ান তেজ বাহাদুরের

২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি প্রার্থী কি এবার বারাণসী কেন্দ্র থেকেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছেন? খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যে কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হয়েছেন, সেই বারাণসী লোকসভা কেন্দ্রে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অসন্তোষ প্রকাশ করে তামিলনাড়ুর ১১১ জন কৃষক একসঙ্গে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে গিয়েছিলেন। এদিকে বৃহস্পতিবার প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরার মন্তব্যের পর জল্পনা শুরু হয়েছে, মোদীর কেন্দ্রে তিনিই হয়তো কংগ্রেসের সম্ভাব্য প্রার্থী। পাশাপাশি সমাজবাদী পার্টি-বহুজন সমাজ পার্টির জোটের প্রার্থী কে হবেন তা এখনও স্থির হয়নি। এরই মধ্যে আরও এক প্রতিপক্ষ বাড়ল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। কে এই নয়া প্রতিদ্বন্দ্বী?
সেনায় বাজে খাবার দেওয়ার অভিযোগে ২০১৭ সালে সোশ্যাল মিডিয়ায় সোচ্চার হয়েছিলেন বিএসএফ জওয়ান তেজ বাহাদুর যাদব। সেই ঘটনার পর, শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বিএসএফ থেকে তেজ বাহাদুরকে সাসপেন্ড করা হয়। যদিও এই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তেজ বাহাদুর। সে মামলা এখনও চলছে। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী হচ্ছেন বলে জানালেন প্রাক্তন বিএসএফ জওয়ান তেজ বাহাদুর যাদব।
সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তেজ বাহাদুর বলেন, জিত বা হার, ফলাফল যাই হোক না কেন, মোদী সরকারের ব্যর্থতা নিয়ে প্রশ্ন তোলার লক্ষ্যেই প্রার্থী হচ্ছেন তিনি। তেজ বাহাদুরের কথায়, প্রধানমন্ত্রী দেশের সেনার নাম করে ভোট চাইছেন, অথচ তাঁদের জন্য কিছুই করেননি। শুধু তাই নয়, পুলওয়ামায় নিহত সিআরপিএফ জওয়ানদের ‘শহীদ’ তকমা দিতেও আপত্তি মোদী সরকারের, তোপ তেজ বাহাদুর যাদবের।
হরিয়ানার নারনাউল জেলার বাসিন্দা তেজ বাহাদুর জানান, বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দল তাঁকে প্রার্থী হতে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর বারাণসী লোকসভা কেন্দ্রে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবেই লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
তেজ বাহাদুরের আরও অভিযোগ, দুর্নীতি প্রসঙ্গে মুখ খোলার জন্যই তাঁকে সাসপেন্ড হতে হয়েছে, শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্য নয়। প্রাক্তন সেনা ও কৃষকদের সাহায্যে বারাণসী কেন্দ্রে ভোট প্রচার শুরু করে দেবেন বলে সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন তেজ বাহাদুর যাদব।

Comments
Loading...