ভোটে বিজেপির আসনের ভবিষ্যদ্বাণী করে সাসপেন্ড অধ্যাপকের সাসপেনশনে স্থগিতাদেশ মধ্য প্রদেশ হাইকোর্টের

‘বিজেপি ৩০০ র আশেপাশে, এনডিএ পার করবে ৩০০ আসন’, লোকসভা ভোট চলাকালীন ফেসবুকে এমনই ভবিষ্যদ্বাণী করে সাসপেন্ড হতে হয়েছিল মধ্য প্রদেশের বিক্রম বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্কৃতের অধ্যাপক ডক্টর রাজু মুসলগাঁওকরকে। বুধবার অধ্যাপকের সানপেনশনের ওপর স্থগিতাদেশ দিল মধ্য প্রদেশ হাইকোর্ট।
গত ২৯ শে এপ্রিল চতুর্থ দফা ভোটের দিন ফেসবুকে অধ্যাপক রাজু মুসলগাঁওকর লিখেছিলেন, বিজেপি জিতবে কমবেশি ৩০০ আসন, এনডিএ পার করবে ৩০০। অধ্যাপকের এই পোস্ট নির্বাচনী নীতি বিরুদ্ধ, প্রভাবিত করতে পারে ভোট, এমনই অভিযোগে করেছিলেন মধ্যপ্রদেশের যুব কংগ্রেস সম্পাদক বাবলু খিঞ্চি। এই পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যের উচ্চশিক্ষা দফতর সাসপেন্ড করে বছর পঞ্চান্নর অধ্যাপককে।
বুধবার মধ্য প্রদেশ হাইকোর্টের বিচারপতি বিবেক রুসিয়ার এজলাসে এই মামলার শুনানি হয়। অধ্যাপক রাজু মুসলগাঁওকরের আইনজীবী আদালতে সওয়াল করেন, ছাত্রদের জ্যোতিষচর্চা শেখানোর সময় উদাহরণস্বরূপ বিজেপির ভোটভাগ্য গণনা করেছিলেন অধ্যাপক মুসলগাঁওকর। আর সেখান থেকেই এই ফেসবুক পোস্ট করেন। যদিও পরে সেই পোস্ট ডিলিট করে দেন বলে আদালতে জানিয়েছেন ডক্টর রাজু মুসলগাঁওকর। অধ্যাপক আরও জানান, তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেননি এবং তাঁর ভোটের ডিউটিও ছিল না। তাহলে কীভাবে তাঁর পোস্ট নির্বাচনী বিধি লঙ্ঘন করতে পারে, আদালতে সওয়াল করেন অধ্যাপক। তাঁর অভিযোগ রাজ্যের শাসক দলের নির্দেশে তাঁকে চাকরি থেকে সাসপেন্ড করা হয়। এই প্রেক্ষিতে বুধবার অধ্যাপক ডক্টর রাজু মুসলগাঁওকরের সাসপেনশনে স্থগিতাদেশ দেয় মধ্যপ্রদেশ হাইকোর্ট।

Comments
Loading...