শুভেন্দু: দিল্লি-কলকাতায় এক দলের সরকার চাই, নাম না করে অভিষেককে তোলাবাজ বলে আক্রমণ

যে দলের জন্য অকৃতদার রইলাম, যে দলের জন্য ২১ বছর খেটেছি, আমার যখন করোনা হল, সেই দলের একজনও খোঁজ নেয়নি। অমিত শাহ দু’বার আমার খোঁজ নিয়েছেন। তাঁকে আমি কোটি কোটি নমন জানাই। 

বিজেপিতে যোগ দিয়ে মেদিনীপুরের মঞ্চ থেকে বললেন শুভেন্দু অধিকারী। পাশাপাশি জেলার বিজেপি নেতাদের জানিয়ে দিলেন, শুভেন্দু মাতব্বরি করতে বিজেপিতে আসেনি। পার্টির একজন কর্মী হিসেবে যে দায়িত্ব দেওয়া হবে তাই পালন করব। পতাকা লাগাতে বললে লাগাব, দেওয়াল লিখতে বললে তাই করব। 

এদিন প্রথম বিজেপির মঞ্চে উঠে সরাসরি মমতা ব্যানার্জিকে নিয়ে প্রায় কিছুই বলেননি শুভেন্দু। শুধুমাত্র এক জায়গায় শুভেন্দু বলেন, ক’দিন আগে এই মাঠে সভা করে গেছেন তৃণমূল নেত্রী। তিনি বলেছেন, পার্টি প্রতিষ্ঠার পর কাঁথিতে লড়েছিলাম, আমরা দ্বিতীয় হয়েছিলাম। উদ্দেশ্যটা কী? শুভেন্দু বলেন, অধিকারীদের বাদ দিয়ে দ্বিতীয় হয়েছিলাম, এটাই ছিল বলার উদ্দেশ্য। তারপরই সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা বলেন, হ্যাঁ, এবারেও আপনি দ্বিতীয় হবেন। প্রথম হতে পারবেন না। বিজেপি প্রথম হয়ে সরকার তৈরি করবে। শুভেন্দু অধিকারী বলেন, আমি মনেপ্রাণে চাই দিল্লি আর কলকাতায় একই দলের সরকার থাকুক। না হলে বাংলা বাঁচবে না। 

শনিবার শুভেন্দুর আক্রমণের মূল লক্ষ্য ছিলেন অভিষেক ব্যানার্জি। তবে এক্ষেত্রেও নাম করেননি তিনি। তৃণমূলে থাকাকালীন শুভেন্দু অধিকারী হুঙ্কার দিয়েছিলেন, বিজেপি হটাও, দেশ বাঁচাও। সেই ভিডিও শুভেন্দুকে পাঠিয়েছিলেন তৃণমূলের এক নেতা। শুভেন্দু দাবি করেন, তিনি তৃণমূলের ওই নেতাকে জবাব দেন, তিনি যা করেন নিষ্ঠার সঙ্গেই করেন। ঠিক যেমন, আগামীকাল মেদিনীপুর কলেজ মাঠে তিনি বলবেন, তোলাবাজ ভাইপো হঠাও।

Comments
Loading...