কলকাতার রোলের বিশ্বজয়! রোল বিক্রি করে ১৪ মিলিয়নের কোম্পানির মালিক পায়েল সাহা

পরবর্তী আউটলেট খুলতে চলেছেন জাপানে

শুধুমাত্র রোল বিক্রি করে সুদূর মার্কিন মুলুকে ১৪ মিলিয়ন ডলার-কোম্পানির মালিক কলকাতার বাঙালি মেয়ে! অবাক হচ্ছেন? এই রূপকথাটি সত্যি করেছেন পায়েল সাহা। নিউইয়র্কে তিনি The kathi Roll Company নামে একটি ফুড চেনের প্রতিষ্ঠা করেছেন। যার বর্তমান মূল্য ১৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার!   

কলকাতাবাসীর রোল প্রেম সর্বজনবিদিত। লাঞ্চ হোক বা সন্ধ্যের টিফিন, এগরোল, চিকেন রোল, পনির রোল পছন্দ করেন না এমন খাদ্যরসিক বাঙালি পাওয়া দুষ্কর। একজন কলকাতাবাসী হিসেবে পায়েলও যথারীতি মজেছিলেন রোলে। তাঁর রোলের প্রতি ভালোলাগা উড়িয়ে নিয়ে যান সুদূর আমেরিকায়। একটি সাক্ষাৎকারে পায়েল জানান, ২০০০ সালে ২২ বছর বয়সে বিয়ে করে তিনি নিউইয়র্কে আসেন। ভিসার শর্ত ছিল, পায়েল কোনও চাকরি করতে পারবেন না। কিন্তু থামিয়ে রাখা যায়নি পায়েলকে।  মাত্র একজন কর্মী নিয়ে রোলের দোকান খুলে ফেলেন। যার বর্তমান মূল্য ১৪ মিলিয়ন ডলার।  

২০০২ সালে পায়েল তাঁর প্রথম আউটলেটটি খোলেন ছাত্র, ছাত্রী ও লেটনাইট পার্টি ফেরত যুবক যুবতীদের জন্য। ব্যবসা শুরুর তিন বছর পরেই তিনি দ্বিতীয় আউটলেটটি খোলেন। তারপরে ২০০৭ এবং ২০১২ তে যথাক্রমে লন্ডন ও ম্যানহাটনে The kathi Roll Company এর পরবর্তী আউটলেটগুলো খোলে।

 

প্রথমদিকে ৫০ ডলার রোজগার থেকে বর্তমানে ১৪ মিলিয়নে পৌঁছানোর যাত্রাপথের গল্প বলতে গিয়ে পায়েল জানান, তাঁর প্রথাগত কোনও ব্যাবসায়িক ডিগ্রি নেই, এমনকি ব্যবসা শুরু করার সময় তাঁর কাছে পোক্ত কোনও প্ল্যানও ছিল না। বন্ধু এবং আত্মীয় স্বজনের কাছ থেকে দেড় লক্ষ ডলার ধার করে একজন কর্মচারী নিয়ে তিনি তাঁর প্রথম দোকানটি খোলেন। বর্তমানে পায়েলের সংস্থায় কর্মচারীর সংখ্যা ১১৬ জন। রোলের পাশাপাশি The kathi Roll Company এর আউটগুলিতে লস্যি, ম্যাঙ্গো লস্যি, মিষ্টি দই লস্যির মত কলকাতার জনপ্রিয় স্ট্রিট ফুড পাওয়া যায়। এমনকি আউটগুলির সাজসজ্জাতেও পায়েল কলকাতার ছোঁয়া রেখেছেন। তিনি জানান পরবর্তী আউটলেট খুলতে চলেছেন জাপানে।

Comments
Loading...