১০০ গাড়ি নিয়ে নন্দীগ্রাম ঢুকবো! তৃণমূলে শুভেন্দু বিদায়ের পর ফের সক্রিয় মদন?

ভোট যত এগিয়ে আসছে, স্বমহিমায় ফিরছেন মদন মিত্র। শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দেওয়ার দিন কামারহাটিতে আতশবাজির প্রদর্শনী করেছেন। বলেছেন, বড়ো ভাইরাস বিদায় হল। এবার সরাসরি শুভেন্দুর ঘাঁটি নন্দীগ্রাম যাওয়ার ঘোষণা করলেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী। 

শুভেন্দু অধিকারী যেদিন বিজেপিতে যোগ দিলেন, সেদিনই যেন গা ঝারা দিয়ে উঠলেন মন্ত্রিসভায় তাঁর পূর্বসূরি মদন মিত্র। সাফ জানিয়ে দিলেন, নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর জনপ্রিয়তা তলানিতে ঠেকেছে বলেই পালানোর প্ল্যান। 

শনিবারের বারবেলায় মেদিনীপুর থেকে শাহের কপটারে শুভেন্দু যখন কলকাতা আসছেন, কামারহাটিতে তখন অকাল দীপাবলি। কালো আকাশকে আলোয় ভরিয়ে আতশবাজির প্রদর্শনী, মাটিতে ডিজে-তাসার যোগ্য সঙ্গত। কিন্তু কেন উৎসব? স্বভাবসিদ্ধ স্টাইলে মদন মিত্রের উত্তর, আজ তৃণমূল ভাইরাস মুক্ত হল। বেইমানরা বেরিয়ে গেছে। দল এখন শুদ্ধ। তাই একটু আনন্দ-ফুর্তি! আনন্দ ফুর্তি হবে আর মদন মিত্র স্রেফ দর্শক হয়ে থাকবেন, তা আবার হয় নাকি! সেই আসরে মদন মিত্রকে দেখা যায় সৌরভ গাঙ্গুলির লর্ডসের ব্যালকনি থেকে শার্ট ওড়ানোর ভঙ্গিতে। উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন মদনের অনুগামীরা। সোশ্যাল মিডিয়াতে কার্যত মহানায়কের মর্যাদা পান মদন মিত্র। রিচ বা লাইক, মদন মিত্রের ধারেকাছে নেই কেউ। সেলেব্রেশনের ভিডিও মুহূর্তে ভাইরাল হয়। 

মমতা ব্যানার্জির নামে জয়ধ্বনি দিতে দিতে মদন মিত্র সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন শুভেন্দুর দিকে। বলেন, ১০০ গাড়ি নিয়ে নন্দীগ্রাম ঢুকবো। দেখি কোন দাদার কোন অনুগামী মমতা ব্যানার্জির অনুগামীকে আটকাতে পারে! 

ক’দিন আগেই মদন মিত্রকে পরিবহণ দফতরের বিশেষ কমিটির চেয়ারম্যান করেছে নবান্ন। তৃণমূল সূত্রে খবর, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে দলের পুরনো সৈনিকদের ফের চাঙা করা হচ্ছে। মদন মিত্রকে তাঁর পুরনো দফতরের বিশেষ কমিটির চেয়ারম্যান করে এই বার্তাই আবার দেওয়া হল। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনুমান, ২১ এর ভোটের পর নতুন সরকার গড়ার মতো জায়গা তৈরি হলে মদন মিত্রকে পরিবহণে ফেরাতে পারেন মমতা ব্যানার্জি। কমিটির চেয়ারম্যান করে দাপুটে নেতাকে সেই বার্তাই দেওয়া হল।

Comments
Loading...