দিলীপের বারমুডা মন্তব্যের নিন্দা মহুয়া মৈত্র-দীপ্সিতা ধরের, বললেন বিকৃত মানসিকতা

পুরুলিয়ার প্রচার সভায় মমতা ব্যানার্জিকে অশালীন মন্তব্য করেন দিলীপ ঘোষ

নন্দীগ্রামে প্রচারে আহত হন মমতা ব্যানার্জি। তারপর থেকে হুইল চেয়ারে বসেই দৈনিক ৩ টি করে জনসভা করছেন তিনি।
পুরুলিয়ার প্রচার সভায় মমতা ব্যানার্জিকে অশালীন মন্তব্য করে দিলীপ ঘোষ বলেন, ভাঙা পা দেখাতে হলে শাড়ি ছেড়ে ‘বারমুডা’ পরতে পারেন তো! এমন মন্তব্যের পর বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে বিতর্ক শুরু হয়।
বুধবার সকালে দিলীপ ঘোষের অশালীন মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে কৃষ্ণনগর কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র ট্যুইট করে লেখেন, BJP প্রচার সভায় বলছে মমতাদির শাড়ি ছেড়ে, ‘বারমুডা’ শর্টস পরা উচিত! মহুয়ার বিজেপিকে আক্রমণ, এই বিকৃত মানসিকতার হনুমানরা কী মনে করে বাংলা জয়ের স্বপ্ন দেখছে?

 

শুধু তৃণমূলই নয়। দিলীপ ঘোষের মন্তব্যের নিন্দা করা হয়েছে বাম শিবির থেকেও। বালির সিপিএম প্রার্থী দীপ্সিতা বলছেন, বিজেপি এমন একটি রাজনৈতিক দল, যারা পরিপূর্ণ পুরুষতন্ত্রে বিশ্বাস করে। বিজেপি-আরএসএস মনে করে মহিলাদের জন্মই হয়েছে পুরুষের পায়ের তলায় থাকার জন্য। দিলীপ ঘোষের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে এবার মুখ খুললেন বালির সিপিএম প্রার্থী দীপ্সিতা ধর। TheBengalStory কে জানান, পশ্চিমবঙ্গের মানুষ এমন এক রাজনীতির সামনে এসে দাঁড়িয়েছে যেখানে একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব অপর রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব কী পোশাক পরবেন, বারমুডা পরবেন না শাড়ি পরবেন, সব বলে দিচ্ছেন! এটা ভীষণই কুরুচিকর মন্তব্য। বাংলায় যে নোংরা রাজনীতির চর্চা চলছে তাকে অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে বলে দাবি জেএনইউয়ের প্রাক্তনী দীপ্সিতা।
তবে এই প্রথম নয়, নারী-পুরুষ নির্বিশেষে বিরোধীদের প্রতি কুরুচিকর ভাষা ব্যবহার করে আগেও বিতর্কে জড়িয়েছেন দিলীপ ঘোষ।

Comments
Loading...