চুম্বন দৃশ্যের জন্য নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে তদন্তে মধ্যপ্রদেশ সরকার! খাজুরাহো মন্দিরের ছবি পোস্ট করে বিজেপিকে কটাক্ষ মহুয়া মৈত্রের

‘আ সুইটেবল বয়’। নেটফ্লিক্সের সিরিজ এখন বিতর্কের কেন্দ্রে। সিরিজে আপত্তিকর দৃশ্য আছে কী না তা খতিয়ে দেখতে মধ্যপ্রদেশের বিজেপি সরকার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। মূল আপত্তি, মন্দির চত্বরে শিল্পীদের চুমুর দৃশ্য নিয়ে। এবার এই ইস্যুতে শিবরাজ সরকারকে কটাক্ষ করলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। 

ট্যুইটে কৃষ্ণনগরের সাংসদের খোঁচা, অদৃষ্টের পরিহাস! বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশ সরকার পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে নেটফ্লিক্সের সিরিজটি দেখে তাতে কোনও চুমুর দৃশ্যে ভাবাবেগ আহত হয়ে থাকলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে। তারপর মহুয়া লিখেছেন, অথচ রাজধানী ভোপাল থেকে মাত্র ৩০০ কিলোমিটার দূরে খাজুরাহো মন্দির! ট্যুইটে খাজুরাহো মন্দিরের দেওয়ালে খোদাই করা একটি চুম্বন ভাস্কর্যের ছবিও দিয়েছেন তিনি। 

ভারতের প্রাচীন মন্দির খাজুরাহো গোটা দুনিয়ায় পরিচিত তার অসাধারণ ভাস্কর্যের জন্য। অভিযোগ ক্ষমতাসীন বিজেপি মানুষের ব্যক্তিগত পরিসরে ঢুকে নজরদারি চালানোর চেষ্টা করছে। সেই কারণে কোনও দৃশ্যকে আপত্তিকর বলে দেগে দিয়ে ওয়েব সিরিজে কাঁচি চালাতে উঠেপড়ে লেগেছে বলে দাবি বিরোধীদের। এই প্রেক্ষিতে তৃণমূল সাংসদ বিজেপি সরকারের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলে ছুঁড়ে দিলেন প্রাচীন মন্দিরের ভাস্কর্যের ছবি। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে মহুয়া আসলে বিজেপি-আরএসএসের ব্যক্তিগত পরিসরে ঢুকে পড়ার গোঁড়া মানসিকতাকেই কটাক্ষে বিঁধলেন। 

Comments
Loading...