যোগী BJP-র তারকা প্রচারক আর বাংলায় ভোট করাবে UP পুলিশ! আপত্তি জানিয়ে কমিশনে TMC

শুধু উত্তরপ্রদেশই নয়, বিজেপি শাসিত যে কোনও রাজ্যের আর্মড পুলিশ ফোর্স বাংলার ভোটে ব্যবহার হলে নির্বাচন প্রভাবিত হতে পারে বলে আশঙ্কা তৃণমূলের

মঙ্গলবার বিজেপির বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দিল তৃণমূল। পরপর দুটি চিঠিতে তৃণমূল নেতৃত্বের অভিযোগ, কেন্দ্র ক্ষমতার অপব্যবহার করে বাংলার নির্বাচনকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে।
কমিশনকে দেওয়া চিঠিতে তৃণমূলের রাজ্যসভার নেতা ডেরেক ও’ব্রায়ানের অভিযোগ, তাঁদের নজরে এসেছে উত্তরপ্রদেশ থেকে ৩০ কোম্পানি SAP বাংলার নির্বাচনে ব্যবহার করা হবে। উত্তরপ্রদেশের স্টেট আর্মড ফোর্সকে বাংলার ভোটে ব্যবহার করার তীব্র বিরোধিতা করছে তৃণমূল। চিঠিতে রাজ্যের শাসক দল জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশে বিজেপি সরকার আছে এবং সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বাংলার নির্বাচনে বিজেপির স্টার ক্যাম্পেনার। তাই যোগী বা বিজেপির প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণের সম্ভাবনা আছে।
শুধু উত্তরপ্রদেশই নয়, বিজেপি শাসিত যে কোনও রাজ্যের আর্মড পুলিশ ফোর্স বাংলার ভোটে ব্যবহার হলে নির্বাচন প্রভাবিত হতে পারে বলে আশঙ্কা তৃণমূলের। বিজেপি শাসিত কোনও রাজ্যের পুলিশকে বাংলার নির্বাচনে ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকার আর্জি জানিয়ে কমিশনকে চিঠিতে জানিয়েছে তৃণমূল।

নির্বাচন কমিশনকে তৃণমূলের চিঠি ১

বাঁকুড়ার জনসভা থেকে একই ইস্যুতে সুর চড়িয়েছেন মমতা ব্যানার্জিও।
এছাড়া আরও একটি গুরুতর অভিযোগ করেছেন ডেরেক। বিজেপি বাংলার ভোটের মুখে কেন্দ্রীয় সংস্থা গুলিকে কাজে লাগিয়ে তৃণমূল নেতাদের হেনস্থা করার চেষ্টা করছে। চিঠিতে লেখা হয়েছে সম্প্রতি তৃণমূলের মুখপাত্র সহ একাধিক নেতা মন্ত্রীকে ইডি, সিবিআই তলব করছে। পাঁচ বছরের পুরোনো মামলায় ভোটের মুখে বেছে বেছে প্রার্থী, নেতাদের ডেকে পাঠানোর নেপথ্যে রাজনৈতিক অভিসন্ধি রয়েছে।

নির্বাচন কমিশনকে তৃণমূলের চিঠি ২

এই প্রেক্ষিতেই ঘাসফুল শিবিরের প্রশ্ন, একই মামলায় বিজেপির একাধিক নেতা অভিযুক্ত হলেও তাঁদের কেন তলব করা হচ্ছে না? তৃণমূলের দাবি, আদর্শ আচরণবিধি অনুযায়ী যেখানে রাজ্যের পুলিশ কমিশনের আওতায় সেখানে কেন্দ্রীয় এজেন্সিগুলিকে এভাবে ব্যবহার দৃষ্টিকটু। কমিশন যেন এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়।
পাশাপাশি তৃণমূলের অভিযোগ, মোদী-যোগীরা রাজ্যে প্রচারে আসছেন। অথচ তাঁরা ব্যবহার করছেন সরকারি যান বাহন এবং সরকারি নিরাপত্তা! এটা কি নির্বাচনী বিধিভঙ্গ নয়?

Comments
Loading...