তৃতীয় লিঙ্গকে স্বীকৃতি দিয়ে পুলিশে নিয়োগ ছত্তিশগড়ে

রাজ্য় পুলিশ বিভাগে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষকে নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিল ছত্তিশগড় সরকার। শুক্রবার ছত্তিশগড়ের শীর্ষ পুলিশ আধিকারিক ও স্বরাষ্ট্র দফতরের বৈঠকের পর এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করে রাজ্য় পুলিশ কর্তৃপক্ষ। পুরুষ ও মহিলাদের নিয়োগে যে গাইডলাইন মেনে চলা হয়, সেই নিয়মেই হবে নিয়োগ। তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের মধ্য়ে কারা পুলিশের চাকরিতে যোগ দিতে ইচ্ছুক, তা জানতে ইতিমধ্য়েই ওয়ার্কশপ শুরু করেছে ছত্তিশগড় পুলিশ। সেখানেই উৎসাহীদের থেকে আবেদনপত্রও জমা নেওয়া হচ্ছে। লিখিত পরীক্ষায় পাস করার পর মেডিকেল টেস্টের পরেই তাঁদেরকে নিয়েোগ করা হবে। ওয়ার্কশপের মাধ্য়মে এখনও অবধি ৪০ জন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ কনস্টেবল পদে চাকরির আবেদনপত্র জমা দিয়েছেন। এই রাজ্য়ের তিন হাজার তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মধ্য়ে বেশিরভাগই ওবিসি সম্প্রদায়ভূক্ত। এঁদের মধ্য়ে থেকে অনেকেই ছত্তিশগড় সরকারের এই পদক্ষেপে সাড়া দেবেন বলে আশা ছত্তিশগড় পুলিশ বিভাগের।
২০১৪ সালে শীর্ষ আদালত রায় দেয়, তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করা যাবে না। একে মাথায় রেখেই ভারতের প্রথম রাজ্য় হিসেবে পুলিশে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ নিয়োগ করতে উদ্য়োগী হল ছত্তিশগড়ের রমন সিংহের সরকার। যদিও ভারতে পুলিশ বিভাগে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ হিসেবে প্রথম নিযুক্ত হন পৃথিকা ইয়াসিনি। ২০১৭ সাল থেকে তামিলনাড়ুতে কর্মরত তিনি।

Comments
Loading...