শনিবার পঞ্চায়েত ভোট: ত্রিপুরায় ৮৬ শতাংশ আসনে বিরোধী প্রার্থীই নেই, বিজেপির বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ সিপিএমের

শনিবার ত্রিপুরায় পঞ্চায়েত ভোট। বৃহস্পতিবার বিকেলেই শেষ হয়েছে প্রচার। প্রায় ৮৬ শতাংশ আসন ইতিমধ্যেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে নিয়েছে বিজেপি। ফলে এবার ত্রিপুরায় মাত্র ১৪ শতাংশ আসনে পঞ্চায়েত নির্বাচন। শনিবার সকাল ৭ টা থেকে ভোট চলবে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত। ৩১ শে জুলাই ভোট গণনা।
রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ত্রিপুরায় ৫৯১ টি গ্রাম পঞ্চায়েতের ৬,১১১ টি আসনের মধ্যে ভোট হবে মাত্র ৮৩৩ টি আসনে। বাকি আসনগুলো আগেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে নিয়েছে বিজেপি। ৩৫ টি পঞ্চায়েত সমিতির ৪১৯ টি আসনের মধ্যে ভোট হবে মাত্র ৮২ টি আসনে। সিপিএমের অভিযোগ, ৩৩৭ টি আসনে বিজেপি সন্ত্রাস করে অন্য কোনও রাজনৈতিক দলের প্রার্থী দাঁড় করাতেই দেয়নি। একই অবস্থা জেলা পরিষদেও। রাজ্যের ৮ টি জেলা পরিষদের ১১৬ টি আসনের মধ্যে শনিবার ভোট হবে ৭৯ টি আসনে। বাকি ৩৭ টি আসন আগেই পকেটে পুরে ফেলেছে বিজেপি। অর্থাৎ, মোট ৬,৬৪৬ টি আসনের মধ্যে শনিবার ভোট হবে কেবলমাত্র ৯৯৪ টি আসনে। বাকি সমস্ত আসন ইতিমধ্যেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে নিয়েছে বিজেপি।
শনিবারের ভোটে ব্যাপক সন্ত্রাসের আশঙ্কা করছেন বিরোধীরা। তাঁদের অভিযোগ, মানুষ ভোট দিতে পারলে কী ফল হবে তা বিজেপি বুঝতে পেরেছে। তাই মানুষকে ভোট দিতে আটকানোর মরিয়া ছক কষা চলছে গেরুয়া শিবিরে। সিপিএমের আবেদন, ভোটের দিন গৈরিক সন্ত্রাস উপেক্ষা করে নিজের ভোট নিজে দিতে হবে। পুলিশ প্রশাসন এবং রাজ্য নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়েও তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেছে সিপিএম। তাদের দাবি, বারবার অভিযোগ জানানো সত্ত্বেও বিজেপির সন্ত্রাসের সামনে কার্যত নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে পুলিশ। সব দেখেও না দেখার ভান করছে নির্বাচন কমিশনও, অভিযোগ সিপিএম, কংগ্রেস সহ বিরোধীদের।
পশ্চিমবঙ্গে শেষ পঞ্চায়েত ভোটে তৃণমূলের বিরুদ্ধে হিংসার অভিযোগ করেছিল বিজেপি সহ বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। বাংলায় প্রায় ৩৫ শতাংশ আসন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে নিয়েছিল তৃণমূল। পাশাপাশি, ভোটের দিন মানুষকে ভোট দিতে বাধা দিতে ব্যাপক সন্ত্রাসের আশ্রয় নিয়েছিল শাসক বাহিনী বলেও অভিযোগ করে বিজেপি। কিন্তু বিজেপি শাসিত ত্রিপুরায় পঞ্চায়েত ভোটে দেখা যাচ্ছে, ৮৬ শতাংশ আসনই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে নিয়েছে বিজেপি। এভাবে হাজার হাজার আসন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিততে বেলাগাম সন্ত্রাসের অভিযোগ এবার খোদ বিজেপির বিরুদ্ধে।

Comments
Loading...