বিশ্বে প্রথম দেশ হিসেবে ফাইজারের টিকায় ছাড় দিল ব্রিটেন, আগামী সপ্তাহেই শুরু টিকাকরণ

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে আশার আলো। বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ফাইজারের (Pfizer) করোনা টিকাকে ছাড়পত্র দিল ব্রিটেন। আগামী সপ্তাহ থেকে ব্রিটেনের নাগরিকদের উপর প্রয়োগ করা হবে এই করোনা টিকা। 

বুধবার ব্রিটেন সরকারের তরফে বলা হয়েছে, নিয়ন্ত্রক সংস্থার সুপারিশ মেনে নেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্যসচিব ম্যাট হ্যানক বলেন আগামী সপ্তাহ থেকেই ব্রিটেনে টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হয়ে যাবে। অর্থাৎ, অতিমারির বিরুদ্ধে ভ্যাকসিন এবার বাজারে চলে এলো বলা চলে। করোনার সঙ্গে কতটা লড়তে সক্ষম ফাইজার বায়োটেক কোভিড-১৯ সেই দিকেই এখন তাকিয়ে গোটা বিশ্ব।

জার্মানির বায়োএনটেক ও তার মার্কিন অংশীদার ফাইজার মঙ্গলবার জানায়, তারা কোভিড–১৯ ভ্যাকসিনের ওপর অনুমোদনের জন্য ইইউ নিয়ামক সংস্থার কাছে আবেদন করেছে। কিছুদিন আগেই ফাইজারের তৃতীয় দফার ট্রায়ালের ফলাফল আসে। তাতে দেখা যায় ৯৪ শতাংশের বেশি কার্যকরী এই টিকা। তারপরেই প্রহর গুনছিল গোটা বিশ্ব। আপৎকালীন ব্যবহারের জন্য আমেরিকা সহ বিশ্বের অনেক স্থানে আবেদন করে ফাইজার। তার মধ্যে সবচেয়ে আগে অনুমোদন দিল ব্রিটেন। প্রথম দফায় ফাইজার-বায়োএনটেক-এর তৈরি প্রতিষেধক দেওয়া হবে ব্রিটেনের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ফ্রন্ট লাইন কোভিড ওয়ারিওরদের। তারপর প্রবীণ ও অসুস্থদের করোনার টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে ২ কোটি মানুষের টিকাকরণের জন্য ৪ কোটি ডোজের বরাত দিয়েছে বরিস জনসনের সরকার। কিছুদিনের মধ্যে আরও ১ কোটি ডোজ পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ স্বাস্থ্য মন্ত্রক।

Comments
Loading...