মাথায় পাগড়ি, গলায় রজনীগন্ধার মালা, ভোট প্রচারে ‘লাভলি’ বয় মদন মিত্র

ভোট প্রচারে মদন মিত্র। মঙ্গলবার কামারহাটির ২৩ নং ওয়ার্ডে প্রচার করেন তিনি। গলায় রজনীগন্ধা ফুলের মালা। মাথায় লাল পাগড়ি বেঁধে চেনা ছবিতেই ধরা পড়েন তিনি। মদন মিত্রকে দেখতে এলাকাবাসীর মধ্যেও উদ্দীপনা দেখা যায়।

আর ৫ টা দিনের মতএদিনও মদন ছিলেন লাভলি মেজাজে। কেউ কেউ মদনের গলায় ঝুলিয়ে দেন জবা ফুলের মালা। তবে এত কিছুর মধ্যেও বয়স্কদের আশীর্বাদ নিতে ভোলেননি তিনি।

দলীয় সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে এলাকার প্রতিটি রাস্তায় রাস্তায় ঘোরেন তৃণমূলের ‘লাভলি’ বয় মদন। লাল রং-এর হুডখোলা গাড়িতে চেপে প্রচার করতে দেখা যায় তাঁকে। হুডখোলা গাড়ির চারপাশে বাংলা নিজের মেয়েকে চায় ব্যানারে ঢাকা ছিল।

কামারহাটি এলাকায় বরাবরই মদন মিত্র নিজের ছন্দে চলাফেরা করেন। মদন মিত্রের ওপর ভরসা করে এবারও তাঁকে পরিচিত কামারহাটি কেন্দ্র থেকেই প্রার্থী করেছে তৃণমূল।

রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা তৃণমূলের নেতা মদন মিত্র বিজেপিকে কটাক্ষ নিজের কথা ও সুরে গান রচনা করেছেন। সেই গানে তিনি বিজেপিকে কটাক্ষ করে বলেছিলেন, কুমড়ো গুলো ফুলো ফুলো, সঙ্গে কিছু ঢেঁড়স মূলো, বেচবি বলে ভাবলি? ‘ও লাভলি’। আরে মোদী অমিত শাহ, কুমড়োর ঘ্যাঁট খা”। ও লাভলি। ভোটের প্রার্থী ঘোষণার পর মদন বলেছিলেন, ভোট দিয়ে বেরিয়ে মানুষ একটাই কথা বলবে, ‘ও লাভলি’।

Comments
Loading...