২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল ভারতকে বিক্রি করে দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা! গড়াপেটার চাঞ্চল্যকর দাবি প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রীর

২৮ বছরের খরা কাটিয়ে ২০১১ সালের ২ এপ্রিল বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। ছয় মেরে রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ মুঠোয় এনেছিলেন ক্যাপ্টেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। সতীর্থদের কাঁধে চেপে জাতীয় পতাকা ওড়াতে ওড়াতে ওয়াংখেড়ে পরিক্রমা করেছিলেন শচীন তেণ্ডুলকর। অকাল বোধনের মেজাজ ছেয়ে গিয়েছিল কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারিকা। কিন্তু সেই ফাইনালে কি গড়াপেটা হয়েছিল? চাঞ্চল্যকর এই অভিযোগ শ্রীলঙ্কার তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী মাহিন্দানন্দা আলুথগামাগের। যে দাবি ঘিরে নতুন করে তোলপাড় ক্রিকেট বিশ্ব।
সম্প্রতি সিরাসা টিভিকে তিনি বলেন, আমি আজ বলছি, ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল আমরা বিক্রি করে দিয়েছিলাম। আমাকে ক্রীড়ামন্ত্রী থাকা অবস্থাতে এটা বিশ্বাস করতে হয়েছিল। কিন্তু সেই সময় কেন তিনি চুপ করে ছিলেন? আলুথগামাগে বলেন, আসলে সেই সময় গোটা ব্যাপারটি প্রকাশ্যে আনতে চাইনি। ২০১০ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত তিনি শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রী ছিলেন। বর্তমানে তিনি একজন রাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ২০১১ সালে আমরাই জিতছিলাম। কিন্তু আমরা ম্যাচ বিক্রি করে দিই। আমার মনে হচ্ছে, এসব নিয়ে এখন কথা বলার সময় এসেছে। তিনি কি কোনও খেলোয়াড়কে ইঙ্গিত করছেন? তার উত্তরে আলুথগামাগে বলেন, আমি কোনও ক্রিকেটারকে এর মধ্যে এখনই টানছি না, কিন্তু একটি অংশ তো অবশ্যই যুক্ত ছিল।
২ এপ্রিল ওয়াংখেড়ের সেই ফাইনালে ভারত ৬ উইকেটে শ্রীলঙ্কাকে হারায়। প্রথমে ব্যাট করে শ্রীলঙ্কা নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৭৪ রান তোলে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৮ রানে আউট হয়ে যান শচীন তেণ্ডুলকার। কিন্তু তারপর গৌতম গম্ভীর এবং ধোনির যুগলবন্দিতে ২৮ বছর পর বিশ্বকাপ জেতে ভারত। ছয় মেরে ম্যাচ শেষ করেন ধোনি।
এর আগে শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক অর্জুনা রণতুঙ্গাও ২০১১ ফাইনালে গড়াপেটার অভিযোগ এনেছিলেন। বলেছিলেন এই ম্যাচের তদন্ত হওয়া উচিত। অবশ্য ভারতীয়রা বরাবরই শ্রীলঙ্কার এই দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন। তাদের দাবি, যোগ্য হিসেবেই সেদিন কাপ উঠেছিল ধোনি বাহিনীর হাতে। এর মধ্যেই ফের একবার গড়াপেটা অভিযোগ তুলে গোটা ঘটনায় নয়া মোড় দিলেন শ্রীলঙ্কার তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী।

Comments
Loading...