ভারতে প্রত্যর্পনে অনুমতি পেল ঋণ খেলাপির দায়ে অভিযুক্ত নীরব মোদী

ঋণ খেলাপির দায়ে অভিযুক্ত নীরব মোদি ভারতে প্রত্যর্পনে অনুমতি পেল। লন্ডনের একটি আদালত এই অনুমতি দেয়। নীরবের বারবার আত্মহত্যার চেষ্টার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানায় লন্ডনের আদালত।

নীরব মোদির বিরুদ্ধে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের ১৪ হাজার কোটি টাকা ঋণ খেলাপির অভিযোগ ছিল। শুধু নীরবই নন, তার মামা মেহুল চোকসির বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ ছিল। এরপরেই দেশ ছেড়ে লন্ডনে পালিয়ে যান এরা দুজনেই। ২০১৯ সালে লন্ডন থেকেই গ্রেফতার হয় নীরব। সেখানকার আদালতেই মামলা চলে। নীরব মোদীকে দেশে ফেরাতে তোড়জোড় শুরু করে সিবিআই।

[আরও পড়ুন- ধর্মনিরপেক্ষতার জন্য আমার শিরদাঁড়া সর্বদা সোজা, টুইটে জানালেন মনোজ তিওয়ারি]

বৃহস্পতিবার লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেটস আদালত জানিয়েছে, মোদী প্রমাণ নষ্ট করে সাক্ষীদের ভয় দেখানোর জন্য ষড়যন্ত্র করেছিলেন। এদিন ভার্চুয়ালি ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনের ওয়ান্ডসওয়ার্থ কারাগার থেকে হাজিরা দেন নীরব মোদি। ওয়েস্টমিনস্টার কোর্টের বিচারক স্যামুয়েল গুজি তাঁকে ভারতে প্রত্যপর্ণ করতে পারবে বলে রায় দেন।

আদালতে নীরবের আইনজীবী জানিয়েছিলেন, মারাত্মক হতাশায় ভুগছেন তাঁর মক্কেল। সে সম্পর্কে বিচারক জানিয়েছেন, মুম্বইয়ের আর্থার রোড জেলে পর্যাপ্ত চিকিৎসা এবং মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়া হবে নীরব মোদিকে।

Comments
Loading...