নেট মাধ্যমের অপব্যবহার বন্ধে কড়া শাস্তির বিধি আনছে কেন্দ্র

অনলাইন সংবাদ এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার রুখতে তৎপর হলও সরকার। বেঁধে দেওয়া হচ্ছে নতুন নিয়ম। দেশের সার্বভৌমত্বের উপর আঘাত এলে কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হবে কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের। জানিয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। এই বিষয়ে কেন্দ্র একজন আধিকারিককে নিয়োগ করবে। যিনি আপত্তিকর বিষয় ব্লক করতে পারবেন।

বৃহস্পতিবার কেন্দ্র ঘোষণা করে ডিজিটাল এন্টারটেনমেন্টের ক্ষেত্রে কিছু নিয়মাবলি আনা হচ্ছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে, soft touch progressive institutional mechanism with level-playing field। এর মাধ্যমে আপত্তিকর কনটেন্টগুলির বিষয়ে সচেতন হওয়া যাবে। কেন্দ্রীয় তথ্যমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ জানিয়েছেন, ভারতে সোশ্যাল মিডিয়া ও OTT প্ল্যাটফর্মগুলির জন্য একগুচ্ছ নিয়মাবলী চালু হচ্ছে। এর মাধ্যমে কেন্দ্র ডিজিটাল সংবাদ সংস্থা, সোশ্যাল মিডিয়া, OTT প্ল্যাটফর্মের পরিষেবার অপব্যবহার রুখবে।

[আরও পড়ুন- ধর্মনিরপেক্ষতার জন্য আমার শিরদাঁড়া সর্বদা সোজা, টুইটে জানালেন মনোজ তিওয়ারি]

বহুদিন ধরেই অনলাইনে কনটেন্ট সেন্সরশিপ একাধিক ওয়েব সিরিজ নিয়ে অভিযোগ জানিয়ে আসছিল। এই ওয়েব সিরিজগুলিতে ধর্মবিদ্বেষ, অশ্লীল ভাষার প্রয়োগ ইত্যাদি থাকছিল বলে অভিযোগ। এবার এসব ক্ষেত্রে রাশ টেনে ধরতে উদ্যোগী হল কেন্দ্র।

ফেক নিউজ রুখতে যে মেকানিজম তৈরি হচ্ছে তাতে ফেক নিউজটি প্রথম কে পোস্ট করছেন তা ধরা যাবে। স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে তথ্যাবলি পোস্ট করতে চাইলে আলাদা করে অনুমতি নিতে হবে। নির্দেশ দেওয়ার ৩৬ ঘণ্টার মধ্যেই সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম থেকে সরিয়ে ফেলতে হবে আপত্তিজনক কনটেন্ট। অ

জানা গিয়েছে, ডিজিটাল মিডিয়ায় নজরদারি চালানোর জন্য কেন্দ্রের তরফে তৈরি করা হচ্ছে একটি কমিটি। প্রতিরক্ষা, বিদেশ, স্বরাষ্ট্র, তথ্য ও সম্প্রচার, আইন, তথ্যপ্রযুক্তি এবং নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রকের প্রতিনিধিরা থাকবেন কমিটিতে।

Comments
Loading...