পরিযায়ী শ্রমিকদের বাংলায় ফেরাতে অসহযোগিতা, মমতাকে চিঠি অমিত শাহের, প্রমাণ করুন, না হলে ক্ষমা চান, ট্যুইটে পাল্টা অভিষেক

দেশে করোনা পরিস্থিতি যখন ক্রমেই আরও জটিল হচ্ছে, তখন পরিযায়ী শ্রমিকদের বাংলায় ফেরানো নিয়ে নয়া সংঘাতে রাজ্য ও কেন্দ্র।

পরিযায়ী শ্রমিকদের সমস্যা সমাধানে রাজ্যের তরফে যথেষ্ট সাহায্য পাওয়া যাচ্ছে না। রাজ্য অসহযোগিতা করছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে লেখা চিঠিতে এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

শনিবার পাঠানো এই চিঠিতে তিনি লিখেছেন, বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকদের আসা ট্রেন রাজ্যে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। ফলে পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্ভোগ আরও বাড়ছে। কেন্দ্র এখনও পর্যন্ত দুলক্ষ শ্রমিককে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছে বলেও চিঠিতে দাবি করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এদিকে মুখ্যমন্ত্রীকে লেখা এই চিঠিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মিথ্যে অভিযোগ করছেন বলে পাল্টা তোপ দেগেছে তৃণমূল। অমিত শাহের বক্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জি। পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মিথ্যা কথা বলছেন বলে ট্যুইট করে অভিযোগ করেন তিনি। এমনকী এই ‘মিথ্যা অভিযোগ’ করায় অমিত শাহকে ক্ষমা চাইতে হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন অভিষেক।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ওই চিঠিতে লিখেছেন, পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানোর জন্য ভারতীয় রেলের উদ্যোগে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চালানো হলেও এই রাজ্যে তাদের ঢুকতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গ সরকার দেশের বিভিন্ন স্থানে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রতি অবিচার করছে।

এই প্রেক্ষিতে পাল্টা জবাব দিতে গিয়ে অমিত শাহকে উদ্ধৃত করে ট্যুইটারে অভিষেক ব্যানার্জি লেখেন,

সঙ্কটের সময়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁর দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়ে গত কয়েক সপ্তাহ নীরব ছিলেন। এবার মানুষকে বিভ্রান্ত করতে মিথ্যেকথা বলছেন। আশ্চর্য লাগে, আপনি তাঁদের কথা বলছেন, যাঁদের ভাগ্যের হাতে সঁপে দিয়েছিল আপনারই সরকার। হয় অমিত শাহ তাঁর অভিযোগের প্রমাণ দিন, অথবা ক্ষমা চান। দাবি অভিষেক ব্যানার্জির।

এতদিন করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যের চিকিৎসা ব্যবস্থা, আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা নিয়ে তুঙ্গে উঠেছিল মোদী সরকার ও মমতা সরকারের সংঘাত। পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানো তা আরও তীব্র হল।

Comments
Loading...