করোনা টিকাকরণ মিটলে CAA, ঠাকুরনগর থেকে বীরভূমের পুনরাবৃত্তি শাহের

করোনার টিকাকরণ শেষ হলেই মতুয়ারা সিএএ-তে নাগরিকত্ব পাবেন। আমরা যা বলি তাই করি। ঠাকুরনগর থেকে জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

প্রসঙ্গত বীরভূম থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে কদিন আগেই এ কথা বলেছিলেন অমিত শাহ। বৃহস্পতিবার নাগরিকত্ব আইন নিয়ে ঠাকুরনগর থেকে কী বার্তা দেন অমিত শাহ, সেদিকে তাকিয়ে ছিল রাজনৈতিক মহল।

এদিন অমিত শাহ স্বীকার করে নেন, মমতা দিদি বলেছেন আমরা কথা দিয়ে রাখি না। কথা দিয়েছিলাম ২০২০ তে CAA আনব, এনেছি। কিন্তু করোনা চলে আসায় মাঝে কাজ বন্ধ হয়ে যায়। করোনা টিকাকরণ শেষ হলেই CAA লাগু হয়ে যাবে। এখন নীতি প্রণয়নের কাজ চলছে বলেও জানান শাহ। তাঁর ঘোষণা, এতে একজন মুসলিমেরও নাগরিকত্ব যাবে না।

[আরও পড়ুন- পুলিশি অত্যাচারের প্রতিবাদে কাল ১২ ঘণ্টার বাংলা বনধের ডাক বামেদেরলিশি অত্যাচারের প্রতিবাদে কাল ১২ ঘণ্টার বাংলা বনধের ডাক বামেদের]

বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় এলে ঠাকুরনগর স্টেশনের নাম হবে “শ্রীধাম ঠাকুরনগর”। ঘোষণা করেছেন অমিত শাহ। এদিন শাহ অভিযোগ করে বলেন, তৃণমূল, বাম-কংগ্রেস সংখ্যালঘুদের ভয় দেখাচ্ছে। CAA নিয়ে ভুল বোঝাচ্ছে। CAA তে কারও নাগরিকত্ব যাবে না।
বাংলায় ডবল ইঞ্জিনের সরকার গড়ার প্রসঙ্গ টেনে অমিত শাহ বলেন, ক্ষমতায় এলে পাঁচ বছরের মধ্যে সোনার বাংলা গড়ে দেখাব।

এদিন মমতা ব্যানার্জিকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে অমিত শাহ জানান, এর আগে ঠাকুরনগরে আমার সফর বাতিল হওয়ায় মমতাদি খুশি হয়েছিলেন। কিছু কারণের জন্য আমি সেইসময় আসতে পারিনি। যতদিন না মমতাদি হারছেন, বারবার ঠাকুরবাড়ি আসব। শান্তনু ঠাকুরকে কথা দিয়েছিলাম, এসেছি।

 

Comments
Loading...