‘খুব দ্রুত আসছি, মঞ্চ খুলবেন না’, মতুয়া পাড়ায় ড্যামেজ কন্ট্রোলে অমিত-বার্তা

অমিত শাহ কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে ফোন করেন

মঞ্চ ভাঙবেন না। আমি ওই মঞ্চেই সভা করব। মতুয়া পাড়ায় অমিত শাহের সভা বাতিল প্রসঙ্গে এমন কথাই কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে মতুয়া ক্ষোভ প্রশমনে নামতে হল বিজেপির দিল্লির নেতৃত্বকে। 

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে ফোন করে জানান তিনি খুব শিগগিরই ঠাকুরনগরে আসবেন, সভা মঞ্চ যেন খোলা না হয়। লাউড স্পিকারে সেই কথা মতুয়াদের শোনান কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক। 

৩০ তারিখ মতুয়া সম্প্রদায়ের অনুষ্ঠানে বনগাঁর ঠাকুরনগরে যাওয়ার কথা ছিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর। কিন্তু রাজধানীতে বিস্ফোরণের জেরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাংলা সফর বাতিল হয়।  

অমিত শাহের সভা বাতিল হওয়ায় মতুয়াদের একাংশের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়। নাগরিকত্ব আইন কার্যকরী না হওয়ায় মতুয়া সম্প্রদায় আগে থেকেই ক্ষুদ্ধ ছিল, উষ্মা প্রকাশ করেছিলেন বিজেপি সাংসদ শান্তুনু ঠাকুরও। অমিত শাহের মতুয়া সম্প্রদায়কে  CAA নিয়ে আশ্বাস দেওয়ার কথা ছিল। এদিন তাঁদের ক্ষোভ প্রশমনে ঠাকুরনগর যান কৈলাস বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়, শুভেন্দু অধিকারীরা। কথা বলেন সাংসদ শান্তুনু ঠাকুরের সঙ্গে। সূত্রের খবর শান্তুনু ঠাকুরের সঙ্গে কথা বলার সময়ই অমিত শাহ ফোন করেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে। 

অমিত শাহের সফর বাতিল প্রসঙ্গে প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ মমতাবলা ঠাকুরের কটাক্ষ, মতুয়াদের সামনে লজ্জায় মুখ দেখতে পারবেন না বলেই অমিত শাহ ঠাকুর নগরে আসেননি৷     

ভোটমুখী বাংলায় মতুয়া সম্প্রদায়ের ভোটকে যে বিজেপি বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে তা নেতৃত্বের তৎপরতা দেখে আরেকবার স্পষ্ট হল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

Comments
Loading...