স্বাধিকারভঙ্গ মামলায় অর্ণবকে রক্ষাকবচ সুপ্রিম কোর্টের, তবে জামিন খারিজ বম্বে হাইকোর্টের

একইদিনে দুই পৃথক মামলার শুনানিতে স্বস্তি ও অস্বস্তি! আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার মামলায় জামিন পেলেন না রিপাবলিক টিভির এডিটর-ইন-চিফ অর্ণব গোস্বামী। তবে একই দিনেই সুপ্রিম কোর্টের রায়ে কিছুটা স্বস্তি পেলেন অর্ণব। তাঁর বিরুদ্ধে স্বাধিকারভঙ্গের নোটিস দিয়েছিল মহারাষ্ট্র বিধানসভা। সেই মামলায় গ্রেফতারি থেকে অর্ণবকে রক্ষাকবচ দেওয়ার পাশাপাশি মামলায় বিধানসভার সহ- সচিবকেই শো-কজ নোটিস দিল শীর্ষ আদালত।

অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু মামলা নিয়ে সংবাদ পরিবেশন করতে গিয়ে অর্ণব আঙুল তুলেছিলেন মহারাষ্ট্র সরকারের দিকে। যার প্রেক্ষিতে মহারাষ্ট্র বিধানসভা থেকে স্বাধিকার ভঙ্গের নোটিস পাঠানো হয়। অভিযোগ, মহারাষ্ট্রের মুখ্য মন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে ও এনসিপি সভাপতি শরদ পাওয়ার সম্পর্কে ‘অবমাননাকর’মন্তব্য করেছেন রিপাবলিক টিভির অ্যাঙ্কর। এই নোটিসকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিলেন অর্ণব। শুক্রবার সে মামলার শুনানিতে প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদে, বিচারপতি এ এস বোপান্না এবং ভি রামসুব্রা ম্যানিয়ানের বেঞ্চ নির্দেশ দেয়, আদালতের পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতার করা যাবে না। পাশাপাশি, মহারাষ্ট্র বিধান মণ্ডল সচিবালয়ের সহ-সচিব বিলাস অঠওয়ালের পাঠানো নোটিসের কড়া সমালোচনা করে সুপ্রিম কোর্ট।

এদিকে শুক্রবারই ২০১৮ সালে আত্মহত্যা প্ররোচনা দেওয়ার মামলায় গ্রেফতার হওয়া অর্ণব গোস্বামীর অম্তর্বর্তী জামিনের আবেদন খারিজ করে দেয় বম্বে হাই কোর্টের বিচারপতি এস এস শিন্দে এবং বিচারপতি এম এস কার্নিকেরর বেঞ্চ। অর্ণবের তরফে সওয়ালকারী আইনজীবী হরিশ সালভে ও আইনজীবী অবোধ পন্ডা যুক্তি দেন, আত্মঘাতী দু’জনের সঙ্গে অর্ণবের শুধু আর্থিক সম্পর্ক ছিল। তাই তাঁর পক্ষে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া সম্ভব নয়। যদিও আদালত জানায়, এদিন দু’পক্ষের সওয়াল শোনা সম্ভব হয়নি। তাই শনিবার এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে।

Comments
Loading...