জেলে লুকিয়ে মোবাইলে ভিডিও রেকর্ডিং! তড়িঘড়ি জেল বদল অর্ণব গোস্বামীর

আলিবাগ জেলের মেকশিফট কোয়ারেন্টিন সেন্টার থেকে তালোজা সেন্ট্রাল জেলে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হল অর্ণব গোস্বামীকে। রবিবার সকালে তড়িঘড়ি রিপাবলিক টিভির এডিটর ইন চিফের জেল বদলের ঘটনায় সাড়া পড়ে গিয়েছে। পুলিশের দাবি, আলিবাগের কোয়ারেন্টিন সেন্টারে লুকিয়ে মোবাইল ফোন ব্যবহার করে বাইরে খবর পাঠাচ্ছিলেন অর্ণব গোস্বামী।
এক ইন্টিরিওর ডেকোরেটরের আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে গত ৪ নভেম্বর অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারপর থেকে আলিবাগ জেলের অস্থায়ী কোয়ারেন্টিন সেন্টারে ঠাঁই হয়েছে তাঁর।

মহারাষ্ট্রের রায়গড় জেলা পুলিশের ইন্সপেক্টর জামিল শেখ জানান, অর্ণব গোস্বামী মোবাইলে বাইরে যোগাযোগ করছিলেন এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় আপডেট দিচ্ছিলেন। শনিবার তা জানতে পেরে তাঁকে কোয়ারেন্টিন সেন্টারে রাখার ঝুঁকি নেয়নি পুলিশ। রবিবার সকালে রিপাবলিক টিভির মুখ তথা কর্ণধার অর্ণব গোস্বামীকে তালোজা সেন্ট্রাল জেলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়, বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

এদিকে রিপাবলিক টিভি একটি ভিডিও প্রকাশ করে দাবি করেছে, জেলে অর্ণবকে মারধর করা হচ্ছে। তাঁর জীবন বিপন্ন। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে অর্ণব গোস্বামী বলছেন, আমাকে এখানে কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে না। সকাল ৬ টার সময় আমাকে মারধর করা হয়েছে। দেশের মানুষকে বলুন, আমার জীবন বিপন্ন। দয়া করে আদালতকে বলুন, আমাকে জেলে মারধর করা হচ্ছে।
অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতার করার সময় তাঁর ফোন বাজেয়াপ্ত করেছিল পুলিশ। জেলে কার ফোন থেকে তিনি ভিডিও রেকর্ড করলেন তা তদন্ত করে বের করার চেষ্টা করছে পুলিশ।

Comments
Loading...