সুখবর! রাষ্ট্র সংঘের গুরুত্বপূর্ণ পদে বসতে চলেছেন বাঙালি কন্যা বিদিশা

বাঙালির জন্য গর্বের দিন। রাষ্ট্র সংঘের গুরুত্বপূর্ণ কমিটিতে নিজের যোগ্যতায় জায়গা করে নিলেন ভারতীয় এবং বাঙালি কূটনীতিক বিদিশা মৈত্র। ২০০৮ সালের ইন্ডিয়ান ফরেন সার্ভিস অফিসার বিদিশা রাষ্ট্র সংঘের অর্থ ও বাজেট বরাদ্দ নিয়ন্ত্রক কমিটির সদস্য নির্বাচিত হলেন।

১২৬টি ভোট পড়েছিল বিদিশার জন্য। আর বিপক্ষে ৪৬টি। এই কমিটির পুরো নাম নাম, অ্যাডভাইসরি কমিটি অন অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অ্যান্ড বাজেটারি কোয়েশ্চন (ACABQ)। অর্থাৎ, দুনিয়াজুড়ে রাষ্ট্র সংঘের যত আর্থিক কর্মকাণ্ড তার যে বাজেট লাগবে তার হিসেব বা অডিটে হ্যাঁ বা না বলার অধিকার থাকবে বিদিশার।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে ভারতের প্রতিই সমর্থন আছে গোটা বিশ্বের তা বেশ বোঝা যায়। তার উপর নিজের দেশের বাঙালি কন্যার এই জয়। রাষ্ট্র সংঘে ভারতের স্থায়ী দূত টি এস তিরুমূর্তি বলছিলেন, বিদিশার এই নির্বাচন ভারতের প্রতি রাষ্ট্র সংঘের সদস্য দেশগুলির সমর্থনের বড়সড় নিদর্শন। আমি নিশ্চিত আগামী দিনে তিনি অ্যাডভাইসরি কমিটি অন অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অ্যান্ড বাজেটারি কোয়েশ্চনে নিরপেক্ষ, লক্ষণীয় এবং লিঙ্গবৈষম্যহীন পদক্ষেপ করবেন।অন্যদিকে আবার ভারত পরের বছর থেকে আরও দু’বছর রাষ্ট্র সংঘের নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী আসনে বসবে।

প্রসঙ্গত, রাষ্ট্র সংঘের মূল মঞ্চে ভাষণ দিতে গিয়ে গত বছর ইমরান ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ, উচিত শিক্ষা দেওয়া, রক্তস্নান, কাশ্মীর নিয়ে দেখে নেব, ধর্মীয় অত্যাচার ইত্যাদি শব্দ প্রয়োগ করেছিলেন। সেই সময় বাছাই করা শব্দ নিয়ে ইমরান খানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্র সংঘের মঞ্চে তুলোধোনা করেন বিদিশা। এর জন্য তাকে ভারত ও ভারতের বাইরে অনেক দেশ থেকেই অভিবাদন জানানো হয়েছিল। বিদেশি সংবাদমাধ্যমগুলিতে ফলাও করে ছাপা হয়েছিল গত বছর এই খবর।

Comments
Loading...