মুখ্যসচিবের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর ভাইয়ের ভুয়ো ছবি ট্যুইটারে শেয়ার বাবুল সুপ্রিয়র!আইনি ব্যবস্থা নিচ্ছি, জানাল কলকাতা পুলিশ

একমাসের মধ্যে দ্বিতীয়বার। সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের ফেক ছবি শেয়ার করার অভিযোগ উঠল কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র বিরুদ্ধে। রবিবার কলকাতা পুলিশ বাবুলের শেয়ার করা ছবিকে ভুয়ো বলে জানিয়েছে।
সম্প্রতি নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে একটি ছবি শেয়ার করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। ছবিটি একটি ঘরোয়া আড্ডার। তাতে রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীবা সিনহাকে দেখা যাচ্ছে। ছবিটি শেয়ার করে বাবুল লেখেন, এই ভাইরাল হওয়া ছবিতে এই হল পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির ভাই কার্তিক ব্যানার্জি, সঙ্গে রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীবা সিনহা!
বাবুল সুপ্রিয়র শেয়ার করা এই ছবি মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে ওঠে। শুরু হয় বিতর্ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় পড়ে যায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর শেয়ার করা ছবি নিয়ে। রবিবার সকালে ডিসি সাউথ মীরাজ খালিদ অফিসিয়াল হ্যান্ডেল থেকে বাবুল সুপ্রিয়র শেয়ার করা ছবিটি তুলে ধরে জানান, এটি ফেক। শুধু তাই নয়, ছবির পাশাপাশি যে তথ্য সরবরাহ করা হয়েছে তাও মিথ্যে। মীরাজ খালিদ জানান, মামলা শুরু হয়েছে, আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মুখ্যমন্ত্রীর ভাই কার্তিক ব্যানার্জি বিবৃতি দিয়ে বাবুলের দাবি খারিজ করেছেন। নিন্দা করেছেন এমন ঘৃণ্য প্রচেষ্টার।

এর আগেও একটি ভিডিও শেয়ার করে তাকে এম আর বাঙুর হাসপাতালের ভিতরের ছবি বলে দাবি করেছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। সেই সময়ও কলকাতা পুলিশ জানিয়েছিল, মন্ত্রীর দাবি ভুয়ো। যদিও সেই সময় কেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে মাননীয় সম্বোধন করা হয়নি তা নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করে ট্যুইট করেছিলেন। ফেক নিউজ ছড়ানোর জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেননি।

এক মাস ঘুরতে না ঘুরতেই ফের ভুয়ো ছবি শেয়ার করে বিতর্কে জড়িয়ে গেলেন এক কালের জনপ্রিয় গায়ক বাবুল। যদিও তিনি যে ছবি শেয়ার করেছেন তা ভুয়ো, এমনটা সরাসরি মানতে নারাজ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। উল্টে ট্যুইটে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন কলকাতা পুলিশের দায়বদ্ধতা নিয়েই। যা দেখে অবাক নেটিজেনরা।

Comments
Loading...