শাহবাগ আন্দোলনের পাঁচ বছর বাদে সংরক্ষণ ইস্যুকে কেন্দ্র করে উত্তাল বাংলাদেশ

বাংলাদেশে সংরক্ষণ তুলে ব্যবস্থা তুলে দেওয়ার কথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা করলেও, সেই ইস্যুকে কেন্দ্র করে নতুন বিতর্ক শুরু হয়েছে গোটা দেশে। বিশেষ করে সামনের সাধারণ নির্বাচনে এর কী প্রভাব পড়বে তা নিয়ে এখন জোর আলোচনা বাংলাদেশে। বাংলাদেশে দীর্ঘদিন চাকরিতে সংরক্ষণ ব্যবস্থা চালু রয়েছে। তা তুলে দেওয়ার দাবি জানিয়ে গত মার্চ মাসে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা আন্দোলনে নামেন। আন্দোলন শুরু হওয়ার পর প্রথম দিকে বিষয়টিকে তত গুরুত্ব দেয়নি শেখ হাসিনার সরকার। সংরক্ষণ ব্যবস্থা তোলা হবে না বলে বাংলাদেশ সরকার ঘোষণা করলে আন্দোলন তীব্রতা পায়। পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ শুরু হয় ছাত্র-ছাত্রীদের। ৮ এপ্রিল ঢাকার শাহবাগে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ নামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের সংগঠন ক্লাস এবং সমস্ত পরীক্ষা বয়কটের ডাক দেয়। অবস্থান শুরু করে শাহবাগ চত্বরে। রাতভর ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী আহত হন। ঢাকাসহ গোটা বাংলাদেশ স্তব্ধ হয়ে যায়।তীব্র আন্দোলনের জেরে ১১ এপ্রিল পিছু হঠে শেখ হাসিনার সরকার। বাংলাদেশে সংরক্ষণ ব্যবস্থা পুরোপুরি বাতিল করা হচ্ছে বলে ঘোষণা করেন দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবছরের শেষে বাংলাদেশে সাধারণ নির্বাচন। প্রধান বিরোধী দল বিএনপি ছত্রভঙ্গ অবস্থায় থাকলেও সংরক্ষণ ব্যবস্থার মতো একটি স্পর্ষকাতর বিষয়ে কোনও ঝূঁকি নিতে চাননি শেখ হাসিনা। আওয়ামী লিগের একাধিক নেতা, মন্ত্রী ছাত্র-ছাত্রীদের এই আন্দোলনের বিরোধিতা করলেও নির্বাচনের কথা ভেবে শেখ হাসিনা তড়িঘড়ি সংরক্ষণ ব্যবস্থা বাতিলের কথা ঘোষণা করেন। আন্দোলনকে বিএনপি সমর্থন করায় এই ইস্যুতে নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে। সূত্রের খবর বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার ছেলে এবং দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডন থেকে সরাসরি ছাত্র-ছাত্রীদের সংরক্ষণ বিরোধী আন্দোলনের পাশে দাঁড়িয়েছেন।
পাঁচ বছর আগে ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে ঢাকায় শুরু হয়েছিল শাহবাগ আন্দোলন। যুদ্ধাপরাধী রাজাকারদের ফাঁসির দাবিতে শুরু হওয়া সেই আন্দোলনে ঝড় উঠেছিল বাংলাদেশজুড়ে। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রীর শাহবাগ আন্দোলন তোলপাড় ফেলে দিয়েছিল বাংলাদেশের বাইরেও। সেই আন্দোলনের বিরোধিতা করে জামাত। শাহবাগ আন্দোলনের পাঁচ বছর বাদে ফের একবার ছাত্র-ছাত্রীদের আন্দোলনে উত্তাল হল ঢাকা। পাঁচ বছর আগে সাধারণ নির্বাচন বয়কট করেছিল বিএনপি। এবার নির্বাচনের কয়েক মাস আগে সংরক্ষণ বিরোধী আন্দোলন স্বাভাবিকভাবেই চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে আওয়ামী লীগ সরকারের কপালে। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া এখন জেলে। তাঁর ছেলে তারেক রহমান দেশের বাইরে। তবুও আন্দোলন শুরু হওয়া মাত্র সংরক্ষণ ব্যবস্থা তুলে দেওয়ার সরকারি ঘোষণাতেই স্পষ্ট, নির্বাচনের আগে কোনও ঝুঁকি নিতে চান না শেখ হাসিনা।

Comments
Loading...