মহুয়ার গতিবিধির উপর নজর রাখতে BSF মোতায়েন! প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে চিঠি সাংসদের  

কৃষ্ণনগরের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের দিল্লির বাড়ির বাইরে দাঁড়িয়ে তিন বিএসএফ জওয়ান। হাতে অ্যাসল্ট রাইফেল। ট্যুইটে সেই ছবি পোস্ট করে মহুয়া লেখেন, আমার বাড়ির বাইরে বিএসএফের তিন জওয়ান দাঁড়িয়ে আছেন। কে পাঠাল জিজ্ঞেস করলে তাঁরা জানান, বারাখাম্বা রোড পুলিশ স্টেশন থেকে তাঁদের পাঠানো হয়েছে। উদ্দেশ্য আমাকে নিরাপত্তা দেওয়া। 

মহুয়া তাঁদের জানিয়ে দেন, তিনি স্বাধীন ভারতের নাগরিক। দেশের সাধারণ মানুষই তাঁর নিরাপত্তা। আলাদা করে বিএসএফের নিরাপত্তা তাঁর প্রয়োজন নেই। ট্যুইটের শেষে তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককে মেনশন করে অনুরোধ করেছেন দ্রুত সিকিউরিটি তুলে নিতে। 

পরের ট্যুইটে তিনি একটি আবেদন পত্রের ছবি পোস্ট করেন। তাঁর এমপি প্যাডে বারাখাম্বা পুলিশ স্টেশন এবং দিল্লি পুলিশের কমিশনারকে অ্যাড্রেস করে তিনি লিখেছেন, ১২ ফেব্র্রুয়ারি বারাখাম্বা থানার অফিসার তাঁর সঙ্গে দেখা করতে আসেন। তারপরেই বিএসএফের ৩ জওয়ানকে তাঁর বাড়ির সামনে মোতায়েন করা হয়। মহুয়ার দাবি, জওয়ানদের কার্যকলাপ দেখে মনে হচ্ছে, তাঁর বাড়িতে কারা যাওয়া আসা করছেন এবং সাংসদের  গতিবিধি নজরে  রাখতেই এঁদের মোতায়েন করা হয়েছে। অভিযোগ তাঁর ব্যক্তিগত পরিসরে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে।  তিনি লিখিত ভাবে বারাখাম্বা থানার কাছে আবেদন করেছেন যেন এই জওয়ানদের সরিয়ে নেওয়া হয়। 

সাংসদের প্রথম ট্যুইটের প্রেক্ষিতে জনৈক বিবেক সিংহ কমেন্ট করেন, বিএসএফ জওয়ানদের কীভাবে স্থানীয় থানা থেকে পাঠানো হল? বিষয়টা অস্বাভাবিক লাগছে। উত্তরে তৃণমূল সাংসদ জানান, তাঁরও তাই মনে হয়েছিল, জিজ্ঞেস করায় জওয়ানরা দাবি করেন তাঁদের থানা থেকে পাঠানো হয়েছে।  

সংসদে নিয়মিত কেন্দ্রীয় সরকারের তীব্র সমালোচনায় সরব হন কৃষ্ণনগরের সাংসদ। কিছুদিন আগে সংসদে তাঁর সরকারকে আক্রমণ করে বক্তৃতা, দেশে আলোড়ন ফেলে দিয়েছে। অর্থনীতিবিদ কৌশিক বসু মহুয়ার বক্তৃতাকে বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সংসদীয় বক্তৃতা বলে অভিহিত করেছেন। এহেন মহুয়ার নিরাপত্তা নিয়ে কি কেন্দ্রীয় সরকার উদ্বিগ্ন? নাকি মহুয়ার গতিবিধির উপর নজর রাখাই উদ্দেশ্য? তাৎপর্যপূর্ণ ব্যাপার হল, থানা থেকে পাঠানো হয়েছে বিএসএফ জওয়ান! তা কী করে সম্ভব? 

জেপি মর্গ্যানের প্রাক্তন কর্মীর সংসদ কক্ষে জ্বালাময়ী বক্তব্য একাধিকবার আন্তর্জাতিক মহলেও চর্চার কেন্দ্রে উঠে এসেছে। লোকসভায় মহুয়ার কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হওয়া এবং কাউকে কিছু না জানিয়ে তাঁর দিল্লির বাড়ির বাইরে সশস্ত্র বিএসএফ জওয়ান মোতায়েনের মধ্যে কোনও সম্পর্ক আছে কি? প্রশ্ন উঠছে। 

Comments
Loading...