CJI কে নিয়ে মন্তব্য, মহুয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে না কেন্দ্র, দাবি NDTV’র

সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রর মন্তব্যের প্রেক্ষিতে, তাঁর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না কেন্দ্র। NDTV প্রকাশিত প্রতিবেদনে এমনই ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার সংসদে প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে মন্তব্যের জেরে কেন্দ্রীয় সরকার তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে পারে বলে জানা গিয়েছিল। সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী জানিয়েছিলেন স্বাধিকার ভঙ্গের অভিযোগে নোটিশ আনা হতে পারে মহুয়ার বিরুদ্ধে। পাল্টা আইন তুলে ধরে মহুয়া কোনও ভুল করেননি বলে দাবি করেছিলেন সৌগত রায়।

কিন্তু মঙ্গলবার এনডিটিভির দাবি, অভিযোগ আনা হচ্ছে না। মহুয়ার বক্তব্য ছিল, প্রাক্তন বিচারপতির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ ওঠে, তারপর অভিযুক্ত বিচারপতির নেতৃত্বেই চলে বিচার। এর ফলে বিচার ব্যবস্থা পবিত্রতা হারিয়েছে। তবে মহুয়া মৈত্র রঞ্জন গগৈয়ের নাম নেননি।

কিন্তু তা নিয়ে আপত্তি জানায় সরকার পক্ষ। প্রাক্তন প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে মহুয়ার মন্তব্যটি সভার কার্যবিবরণী থেকে মুছে দেওয়া হয়। জানা যায়, মহুয়ার এই মন্তব্যের জেরে তাঁর বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের নোটিশ আনতে চলেছে কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় সংসদীয় বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী মহুয়ার এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেন এবং স্বাধিকার ভঙ্গের নোটিশের বিষয়ে সিলমোহর দেওয়ার কথা জানান।

কিন্তু এনডিটিভির দাবি, কেন্দ্র মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নিতে পারবে না। কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়, তৃণমূল সাংসদ বর্তমান নয় বরং প্রাক্তন প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে বলেছেন। প্রাক্তন বিচারপতিরা কর্মরতদের মতো রক্ষাকবচ উপভোগ করেন না। তাই এই ইস্যুতে মহুয়া মৈত্রর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া কার্যত সম্ভব নয়। এই খবর পাওয়ার পর মহুয়া মৈত্র আবার ট্যুইট করেন। কটাক্ষে বেঁধেন কেন্দ্রকে।

এদিকে মহুয়া মৈত্রের এই ঘটনায় কটাক্ষ ধেয়ে এসেছে আসানসোলের বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়ের কাছ থেকে।

Comments
Loading...