এইমসে শুরু কোভাক্সিনের হিউম্যান ট্রায়াল, ৩০ বছরের যুবকের শরীরে প্রয়োগ সম্ভাব্য করোনা ভ্যাকসিন

শুরু হয়ে গেল কোভ্যাক্সিনের হিউম্যান ট্রায়াল। শুক্রবার দিল্লির এইমসে এক ৩০ বছরের যুবকের শরীরে পরীক্ষামূলকভাবে ভারত বায়োটেকের সম্ভাব্য করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়। মোট ১০০ জন স্বেচ্ছাসেবকের উপর ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ প্রয়োগ করা হবে বলে এইমস সূত্রে খবর।

এইমসে হিউম্যান ট্রায়ালের জন্য ১২ জনকে ডাকা হয়েছিল। বিভিন্ন শারীরিক পরীক্ষার পর তাঁদের মধ্যে থেকে প্রথম দফায় ১০ জনকে বেছে নিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। প্রথম ডোজের পর স্বেচ্ছাসেবকদের শারীরিক অবস্থা খতিয়ে দেখে এথিকস কমিটিকে রিপোর্ট দেবে এইমস। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতে গোটা প্রক্রিয়া নতুন করে পর্যালোচনা করা হবে।

হায়দরাবাদের ভারত বায়োটেক আইসিএমআর ও এনআইভির সঙ্গে যৌথভাবে তৈরি করেছে কোভাক্সিন। সেই টিকার হিউম্যান ট্রায়াল চালানোর ছাড়পত্র দিয়েছে ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া। তারপর দিল্লির এইমস সহ দেশজুড়ে ১২ টি ইন্সস্টিটিউটকে হিউম্যান ট্রায়াল চালানোর জন্য বেছে নেওয়া হয়। এই ১২ টি জায়গায় ভ্যাকসিনের প্রথম দুই পর্যায় চালানো হবে।

সংবাদসংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, ভ্যাকসিনের ফেজ ওয়ানে ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়স্ক স্বাস্থ্যবান এবং কোমর্বিডিটিহীন স্বেচ্ছাসেবকের উপর ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে। সন্তানসম্ভবা নন এমন মহিলাদেরও ফেজ ওয়ানে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। দ্বিতীয় ফেজে ৭৫০ জন স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ হবেন। তাঁদের বয়স হতে হবে ১২ থেকে ৬৫ বছরের মধ্যে।

এইমসের ট্রায়ালে অংশ নিতে স্বেচ্ছাসেবক হতে চেয়ে এখনও পর্যন্ত ১৮০০ জনেরও বেশি মানুষ রেজিস্টার করিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ডিরেক্টর ডাক্তার রণদীপ গুলেরিয়া। তিনি জানিয়েছেন, ফেজ ওয়ানে আমরা ভ্যাকসিনটি কতটা নিরাপদ তা পরীক্ষা করে দেখবো। পাশাপাশি ডোজ রেঞ্জও নির্ণয় করা হবে।

Comments
Loading...