জাত তুলে লাগাতার অপমান, যোগীরাজ্যে আত্মঘাতী দলিত সরকারি আধিকারিক, গ্রেফতার ৫

নীচু জাত বলে লাগাতার অপমান, স্থানীয় কৃষক সংগঠন ও গ্রামপ্রধানের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে যোগী রাজ্যে আত্মঘাতী দলিত গ্রামোন্নয়ন আধিকারিক। ঘটনায় কৃষক সংগঠনের ৩ সদস্য সহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
জাতিবিদ্বেষের শিকার হয়ে আত্মঘাতী হওয়ার ঘটনাটি উত্তর প্রদেশের লক্ষ্মীপুর গোলা অঞ্চলের শিবসাগরের। সুইসাইড নোটে মৃত্যুর জন্য দায়ী করা হয়েছে স্থানীয় কৃষক সংগঠনের নেতা ও গ্রাম প্রধানদের বিরুদ্ধে।
২০১৭ সালে লক্ষ্মীপুর খেরি জেলার গ্রামোন্নয়ন আধিকারিক হিসেবে যোগ দেন ত্রিবেন্দ্রকুমার গৌতম। শুক্রবার সকালে ত্রিবেন্দ্রকুমারের বাড়ি থেকে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃতদেহের পাশে পাওয়া যায় একটি সুইসাইড নোট। ত্রিবেন্দ্রকুমারের বাবাকে উদ্দেশ্য করে চিঠিতে লেখা হয়েছে, চাকরিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে তাঁকে ক্রমাগত জাতিবিদ্বেষের শিকার হতে হয়। কিষাণ ইউনিয়ন পার্টির সভাপতি ও ২ গ্রাম প্রধানের বিরুদ্ধে অপমানের অভিযোগ করা হয়েছে চিঠিতে। এই প্রেক্ষিতে একটি ভিডিও ক্লিপ হাতে পায় উত্তর প্রদেশ পুলিশ। যেখানে ওই সরকারি আধিকারিককে ‘কামচোর’ বা ফাঁকিবাজ বলে অভিযোগ করতে দেখা যায় একজনকে। ওই ব্যক্তিকে বলতে শোনা যায় ত্রিবেন্দ্রকুমারের মতো অফিসারকে জুতোপেটা করে কাজ ছাড়িয়ে নেওয়া উচিত। অভিযুক্ত কৃষক নেতা রাকেশ চৌহানকে প্রশ্ন করতে শোনা যায়, কাকে ঘুস দিয়ে চাকরি জোগাড় করেছেন ওই দলিত অফিসার? এই ভিডিয়োর সত্যতা পরীক্ষা করে দেখছে পুলিশ। ঘটনায় মোট ৮ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ। আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে এপর্যন্ত মোট ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Comments
Loading...