তৃণমূলের কনিষ্ঠতম প্রার্থী ২৮ এর সায়ন্তিকা, কৌশানি! সেলেব্রিটি যোগে হাওয়া ঘুরবে কৃষ্ণনগর, বাঁকুড়ায়?

২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে সায়ন্তিকা তৃণমূলের হয়ে প্রচার করেছেন একাধিক জায়গায়

একুশের হাইভোল্টেজ নির্বাচনে তৃণমূলের ২৯১টি আসনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশিত। এবারেও ঘাসফুল চিহ্নে ভোট যুদ্ধে নামছেন বেশ কয়েকজন নতুন তারকা প্রার্থী। তৃণমূলের কনিষ্ঠতম প্রার্থী হলেন এমনই দুই অভিনেতা অভিনেতা সায়ন্তিকা ব্যানার্জি এবং কৌশানি মুখার্জি। দু’জনেরই বয়েস ২৮ বছর।

গত ২৪ জানুয়ারি তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন কৌশানি। ২০১৫ সালে কৌশানি Miss Beauty of Kolkata জিতেছিলেন। ওই বছরেই তৃণমূলের আরেক প্রার্থী পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর ছবির হাত ধরে টালিগঞ্জে যাত্রা শুরু। কৌশানির প্রথম ছবি ‘পারবো না আমি ছাড়তে তোকে’। প্রথম ছবির পর থেকেই বাংলা ছবির প্রথম সারির নায়িকাদের তালিকায় কৌশানির নাম উঠে আসে। ২০১৫ থেকে ২০২১, ছয় বছরে কৌশানি অভিনয় করেছেন ১২ খানা বাংলা ছবিতে। কেলোর কীর্তি, জিও পাগলা, হইচই আনলিমিটেড, বাচ্চা শ্বশুড়ের মতো ঝুলিতে রয়েছে একাধিক হিট বাংলা ছবি। সেলুলয়েডে সফল অভিনেতা হলেও রাজনীতির বাস্তব মাটিতে কৌশানি প্রথম। কৃষ্ণনগর উত্তর থেকে একুশের হাইভোল্টেজ নির্বাচন লড়বেন কৌশানি।

[আরও পড়ুন- বারাকপুরে রাজ, মেদিনীপুরে জুন, আসানসোলে সায়নী, বাঁকুড়ায় সায়ন্তিকা, উত্তরপাড়ায় কাঞ্চন! তৃণমূলের তালিকায় তারকার মেলা]

এক্কেবারে ভোটের মুখে ঘাসফুল শিবিরে নাম লিখিয়েছেন অভিনেতা সায়ন্তিকা ব্যানার্জি। আনুষ্ঠিকভাবে দলীয় পতাকা নিয়ে যোগ দিলেও, অনেক আগে থেকেই সায়ন্তিকা তৃণমূলের সমর্থক। ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে সায়ন্তিকা তৃণমূলের হয়ে প্রচার করেছেন একাধিক জায়গায়। ডান্স রিয়ালিটি শো ‘নাচ ধুম মাচা লে’থেকে সায়ন্তিকার উত্থান। রিয়েলিটি শোয়ের পর বেশ কয়েকটি সিনেমা করলেও বাংলা ছবির পরিচত মুখ হয়ে ওঠেন ২০১২ সালে আওয়ারা ছবিতে অভিনয় করে। বাংলা ছবির প্রথম সারির সব পরিচালকের সঙ্গেই কাজ করেছেন সায়ন্তিকা। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি একজন দক্ষ নৃত্যশিল্পীও। বাঁকুড়া বিধানসভা ক্ষেত্র থেকে এবারে ঘাসফুল চিহ্নে লড়বেন সায়ন্তিকা।

রিল লাইফে সফল দুজন অভিনেতা রিয়েল লাইফে নেতা হিসেবে কতটা সফল হলেন তা জানার জন্য এখন অপেক্ষা ২ মে পর্যন্ত।

Comments
Loading...