প্রথম দিন অনুশীলনে শুধু ফিজিকাল ট্রেনিং করলেন ইস্টবেঙ্গলের নতুন স্ট্রাইকার মার্কোস, কবে মাঠে নামবেন ঠিক হয়নি এখনও

মাদ্রিদ থেকে ২৪ ঘন্টার বিমান যাত্রার পর রবিবার সন্ধ্যেবেলা কলকাতা এসে পৌঁছেছেন ইস্টবেঙ্গল এর নতুন স্ট্রাইকার মার্কোস। সোমবার দুপুরে ইস্টবেঙ্গল অনুশীলনে নেমে পড়লেন তিনি। তবে বাকি দলের সঙ্গে নয়। ফিজিকাল ট্রেনার নোদারের কাছে ট্রেনিং করেন তিনি। জিপিএস ভেস্ট পড়িয়ে মার্কোসের শারীরিক সক্ষমতা যাচাই করে নেন ইস্টবেঙ্গলের ফিজিকাল ট্রেনার। জিপিএস থেকে প্রাপ্ত তথ্য দেখে ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেসান্দ্রো সিদ্ধান্ত নেবেন কতদিন পর খেলার মতো অবস্থায় আসবেন ইস্টবেঙ্গলের নতুন স্ট্রাইকার। শেষ কবে ম্যাচ খেলেছিলেন মার্কোস? তিনি নিজে জানালেন, ৩০ শে জুলাই শেষ প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ম্যাচ খেলেছেন।
মার্কোস জানাচ্ছেন, ইস্টবেঙ্গলের স্প্যানিশ স্টপার মার্তি তার অনেকদিনের বন্ধু। মারতি ইস্টবেঙ্গলের সই করার পর থেকেই ভারতীয় ফুটবল নিয়ে খোঁজখবর নেওয়া শুরু করেছিলেন। মোহনবাগান এবং বড় ম্যাচের কথাও শুনেছেন। ইস্টবেঙ্গল সম্বন্ধে স্পেনে বসেই জেনেছিলেন লালহলুদের আরেক স্প্যানিশ স্টপার বোরহার থেকে। আরও একটি অবাক করার মতো তথ্য দিয়েছেন ইস্টবেঙ্গলের নবাগত বিদেশি। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহনবাগানের স্প্যানিশ স্ট্রাইকার সালভা চামোরো মার্কোসের খুব ভালো বন্ধু। সালভাকে নিয়ে মার্কোস বলছেন, ‘সালভা আমার খুব ভালো বন্ধু। এটা ঠিক আমরা কখনও একই দলে খেলিনি। তবে হংকংয়ে আমরা একে অপরের বিরুদ্ধে খেলেছি। তখন থেকেই পরিচয়।’
ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেজান্দ্রোর কোচিংয়ে এর আগে কখনও খেলেননি। তবে মার্কোস পরিষ্কার জানাচ্ছেন, কোচিং স্টাফদের জন্যই তাঁর ইস্টবেঙ্গলে সই করা। ফ্রান্সিসকো তোত্তির ভক্ত জানাচ্ছেন, পরিবেশ পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে তাঁর কিছুদিন সময় প্রয়োজন।
বুধবার ডুরান্ড কাপ সেমিফাইনাল। ইস্টবেঙ্গলের মুখোমুখি গোকুলাম এফসি। তার আগে মঙ্গলবার সকালে সল্টলেক স্টেডিয়ামের প্র্যাকটিস গ্রাউন্ডে চূড়ান্ত প্রস্তুতি সারবেন ইস্টবেঙ্গল ফুটবলাররা।

Comments
Loading...