BJP তে এলেই জামিন, মিলবে মন্ত্রিত্ব! NIA এর বিরুদ্ধে কৃষক নেতা অখিল গগৈয়ের বিস্ফোরক অভিযোগ

বিজেপিতে যোগ দিলেই মিলবে জামিন! বিধানসভা নির্বাচনের আগে এমনই অভিযোগে উত্তাল অসম। বিস্ফোরক অভিযোগ ‘কৃষক মুক্তি সংগ্রাম পরিষদে’র নেতা অখিল গগৈয়ের। জেলে বসে লেখা চিঠিতে এনআইএ-র বিরুদ্ধে এই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করেছেন কৃষক নেতা অখিল।

২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্বর গ্রেফতার হন ‘কৃষক মুক্তি সংগ্রাম পরিষদে’র নেতা অখিল গগৈ। এনআরসি, সিএএ ইস্যুতে অসমে তখন অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে জোরহাট থেকে গ্রেফতার করা হয় অখিল গিরিকে। তিনি জেলে থাকলেও তাঁর দল বাইরে সক্রিয়। এবার নির্বাচনে লড়াই করছে অখিল গগৈ-র রাইজোর দল।

[আরও পড়ুন- যোগী BJP-র তারকা প্রচারক আর বাংলায় ভোট করাবে UP পুলিশ! আপত্তি জানিয়ে কমিশনে TMC]

এই পরিস্থিতিতে জেল থেকে চিঠি লিখেছেন অখিল। সেখানে তিনি এনআইএর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ এনে জানিয়েছেন, ২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্বর গ্রেফতার হওয়ার পর ১৮ ডিসেম্বর আদালতের অনুমতি ছাড়াই তাঁকে দিল্লি নিয়ে যাওয়া হয়। অখিলের বিস্ফোরক অভিযোগ, এনআইএ সদর দফতরে তাঁকে ১ নম্বর লকআপে আটকে রাখা হয়েছিল। ৩-৪ ডিগ্রির প্রচণ্ড ঠাণ্ডার মধ্যেও মেঝেতে শুতে হয়েছিল। দেওয়া হয়েছিল নোংরা একটি কম্বল। এরপরেই প্রস্তাব আসে বিজেপিতে যোগ দিলে সঙ্গে সঙ্গে নরক যন্ত্রণা থেকে মুক্তি! শুধু তাই নয়, অভিযোগ অসম বিধানসভা ভোটের টিকিটের লোভও দেখানো হয় অখিল গগৈকে। বলা হয়, রাজ্যের মন্ত্রী করে দেওয়া হবে তাঁকে। এবং এই দরদামের পুর প্রস্তাব এসেছে এনআইএ-র তরফে!

এখানেই শেষ নয়, গগৈ তাঁর চিঠিতে লিখেছেন, প্রস্তাবে রাজি থাকলে অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল তাঁর সঙ্গে আলোচনায় বসবেন বলেও জানানো হয় তাঁকে। আর প্রস্তাব না মানলে আরও ১০ বছর জেলে থাকতে হবে বলে জানায় এনআইএ। বিজেপি অবশ্য অখিলের সব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে। কিন্তু তাতে বিতর্ক চাপা যাচ্ছে না।

Comments
Loading...