নিজের জালেই ফেঁসে গেল পাকিস্তান, FIA-র জঙ্গি তালিকায় রয়েছে মুম্বই হামলার ১১ পাক জঙ্গির নাম

এবার নিজের তদন্তেই ফেঁসে গেল পাকিস্তান। ২০০৮ সালের মুম্বই হামলার কথা সবারই মনে আছে। সেই হামলায় ধৃত জঙ্গি আজমল কাসাব জানিয়েছিল মুম্বই হামলায় হাত ছিল পাকিস্তানের। পাকিস্তানেই করা হয়েছিল মুম্বইয়ে হামলা করার পরিকল্পনা।
তা সত্ত্বেও হামলার ব্যাপার সম্পূর্ণভাবে অস্বীকার করে পাকিস্তান। সেই নিয়ে তদন্ত করছিল পাকিস্তানের তদন্ত সংস্থা ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (FIA)। এবার নিজেদের তদন্তেই খুলে গেল পাকিস্তানের মুখোশ। এফআইএ সম্প্রতি প্রকাশ করেছে একটি জঙ্গিদের তালিকা, যেখানে নাম রয়েছে ১১ জন জঙ্গির, যারা মুম্বই হামলার সঙ্গে জড়িত ছিল। তবে ভারত বহুদিন আগেই এদের নাম পাঠিয়েছিল ইমরান খানের সরকারকে।

তদন্তে জানা গেছে, ২০০৮ এ আল ফৌজ নামে একটি বোটের মাধ্যমে সমুদ্রপথে মুম্বইয়ে এসেছিল জঙ্গিরা। এই বোটটি কিনেছিল মহম্মদ আমজাদ খান, যার নাম রয়েছে এফআইএ এর তালিকায়। এমনকী মুম্বই জঙ্গি হামলায় ব্যবহৃত জিনিসপত্র সে কিনেছিল করাচি থেকে। করাচির এআরজেড ওয়াটার স্পোর্ট থেকে কেনা হয়েছিল একটি ইয়ামাহা মোটর বোট ইঞ্জিন ও কয়েকটি লাইফ জ্যাকেট। এরপর কারাচি থেকেই মুম্বইয়ে এসে পৌঁছায় তারা।

বোটটি যে চালিয়েছিল তার নামও রয়েছে এই জঙ্গি তালিকা। আল ফৌজ বোটটি চালিয়েছিল শাহিদ গফুর। তালিকায় বেরিয়ে এসেছে এরকম আরও ৯ বোট ক্রুর নাম। ২০০৮ সালে মুম্বইয়ে হামলা করার জন্য পাকিস্তান থেকে জঙ্গিদের এরাই ভারতে নিয়ে এসেছিল। রাষ্ট্রসংঘের জঙ্গি তালিকাতেও রয়েছে এদের নাম। তারা হল মহম্মদ ওসমান, আতিকুর রহমান, রিয়াজ আহমেদ, মহম্মদ মুস্তাক, মহম্মদ নইম, আবদুল শুকুর, মহম্মদ সাবির, মহম্মদ উসমান, শাকিল আহমেদ। এর পূর্বেও বহুবার ভারত থেকে এদের নাম পাঠানো হয়েছিল পাকিস্তানে।

Comments
Loading...