ভারত রত্ন নিয়ে প্রশ্ন তোলায় অসমে এফআইআর দায়ের গায়ক জুবিন গর্গের বিরুদ্ধে

গত ২৫ শে জানুয়ারি ভারত সরকার ঘোষণা করেছে এবছর মরণোত্তর ভারত রত্ন সম্মান প্রদান করা হবে অসমের প্রয়াত সঙ্গীত শিল্পী ভূপেন হাজারিকাকে। এই মূহূর্তে নাগরিকত্ত্ব বিল ইস্যুতে উত্তপ্ত গোটা উত্তর পূর্ব। অসম, মিজোরাম, মণিপুরসহ একাধিক রাজ্যে লোকসভায় সম্প্রতি পেশ হওয়া নাগরিকত্ত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে তীব্র আন্দোলন শুরু হয়েছে। সেখানকার নাগরিক ও বিক্ষোভকারীদের দাবি, নাগরিকত্ব বিল ইস্যুতে বিক্ষোভকারীদের নজর ঘোরাতে ও উত্তর পূর্বের এই আন্দোলন ধামা চাপা দিতেই কেন্দ্রের বিজেপি সরকার সুপরিকল্পিতভাবে এই পুরস্কার ঘোষণা করেছে। অসম তথা উত্তর পূর্বের গর্ব ভূপেন হাজারিকাকে নিয়ে ভারত রত্ন সম্মান দেওয়ার নামে কেন্দ্র রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
সম্প্রতি এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছে গায়ক জুবিন গর্গ। একটি অডিও ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন তিনি। ভাইরাল হওয়া সেই অডিও ক্লিপে তিনি কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে পরামর্শ দিয়েছেন বিষয়টি নিয়ে রাজনীতি না করার। অনেকের অভিযোগ, নাগরিকত্ব বিল ইস্যুতে কেন্দ্রের বিরোধিতা করতে গিয়ে জুবিন দেশের সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান ভারত রত্নের অসম্মান করেছেন। সূত্রের খবর, এই অভিযোগে ইতিমধ্যেই জুবিন গর্গের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ।
এছাড়াও নাগরিকত্ব বিল ইস্যুতে বেশ কিছুদিন ধরেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হচ্ছিলেন জুবিন। গত ৪ জানুয়ারি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়ালের উদ্দেশ্যে একটি খোলা চিঠি লিখেছিলেন জুবিন গর্গ। সেখানে তিনি পরামর্শ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রীর উচিত বিতর্কিত এই বিলের বিরুদ্ধে মুখ খোলা। উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। যদি এক সপ্তাহের মধ্যে মুখ্যমন্ত্রী কোনও পদক্ষেপ না নেন,  তাহলে অসমে ফিরে এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন জুবিন। বলেছিলেন, তাঁর গান শুনিয়ে ২০১৬ সালে বিজেপি অসমবাসীর যে ভোট পেয়েছিল তা ফিরিয়ে দেওয়া উচিত তাদের।
তবে এই প্রথম নয়, এর আগে প্রস্তাবিত নাগরিক সংশোধনী বিলের বিরোধিতা করায় অসমের প্রখ্যাত বুদ্ধিজীবী হিরেণ গোহেন, সাংবাদিক মনজিত মহন্ত ও সমাজকর্মী অখিল গগৈ এর বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছিল পুলিশ। এছাড়াও এই বিলের বিরুদ্ধে গোটা উত্তর পূর্ব জুড়েই চলছে বিক্ষোভ প্রতিবাদ।
Comments
Loading...