এপ্রিল মাস থেকেই পুরোদমে শুরু হয়ে যাচ্ছে আরএসএস পরিচালিত দেশের প্রথম বেসরকারি সৈনিক স্কুল রাজু ভাইয়া সৈনিক বিদ্যামন্দিরের ক্লাস। আপাতভাবে এক কথায় আশ্চর্যজনক কিছু না থাকলেও, এই স্কুলটির সঙ্গে আমার-আপনার চেনা স্কুলের পার্থক্য আছে ষোলো আনা। উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহরে আরএসএস পরিচালিত এই স্কুলই হতে চলেছে দেশের প্রথম বেসরকারি সৈনিক স্কুল।

এপ্রিল থেকে শিক্ষাবর্ষ চালু করে দিতে ষষ্ঠ শ্রেণির জন্য পড়ুয়াদের আবেদনপত্র আহ্বান করা হয়েছে। তার মধ্যে থেকে বেছে নেওয়া হবে ১৬০ জন পড়ুয়াকে, তার মধ্যে ৮ টি আসন সংরক্ষিত। সম্পূর্ণভাবে আবাসিক এই বেসরকারি সৈনিক স্কুলের মূল লক্ষ্য সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়ার উপযুক্ত পড়ুয়া সমাজ তৈরি করা। এই স্কুল থেকে পাশ করা ছাত্ররা ভারতের সেনাবাহিনীতে নিয়োগের বিভিন্ন পরীক্ষা, যেমন এনডিএ, নৌ বাহিনীতে যাতে সহজেই সুযোগ পায়, তার প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।
গত বছরের জুলাই মাসেই জানা গিয়েছিল, আরএসএস এই লক্ষ্য নিয়ে স্কুল শুরু করতে চলেছে এবং প্রথম স্কুলটি হবে যোগী আদিত্যনাথের রাজ্য উত্তরপ্রদেশেই। প্রাক্তন আরএসএস প্রধান রাজেন্দ্র সিংহ, যিনি রাজু ভাইয়া নামেই বেশি পরিচিত, তাঁর স্মৃতিতেই গড়ে তোলা হয়েছে পুরোদস্তুর বেসরকারি আর্মি স্কুল।

একমাত্র যুদ্ধক্ষেত্রে প্রাণ দেওয়া সেনাদের সন্তানদের জন্য ৮ টি আসন সংরক্ষিত রয়েছে। বাকি আর কোনও সংরক্ষণ নেই সিবিএসই ধাঁচে পরিচালিত হতে চলা এই স্কুলে। জানা গিয়েছে, রেজিস্ট্রেশন শেষ হবে ২৩ ফেব্রুয়ারি, পয়লা মার্চ অ্যাডমিশন টেস্ট। সেখানে ছাত্রদের রিজনিং, সাধারণ জ্ঞান, অঙ্ক এবং ইংরেজির উপর প্রশ্ন থাকবে। লিখিত পরীক্ষার পর হবে ইন্টারভিউ এবং মেডিকেল টেস্ট। তবে যুদ্ধক্ষেত্রে মৃত সেনাদের সন্তানের ক্ষেত্রে বয়সের ঊর্ধ্বসীমায় শিথিলতা থাকবে। আনুষ্ঠানিকভাবে ক্লাস চালু হবে ৬ এপ্রিল থেকে।

সূত্রের খবর, স্থির করা হয়েছে স্কুলের ইউনিফর্মও। ঠিক হয়েছে, ছাত্ররা পরবে নেভি ব্লু প্যান্ট এবং হালকা নীল শার্ট। শিক্ষকদের পরতে হবে সাদা জামা ও ধুসর প্যান্ট।
স্কুলের শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীদের নেওয়ার কাজ ফেব্রুয়ারির মধ্যেই শেষ হয়ে যাবে। আরএসএসের শিক্ষা শাখা বিদ্যা ভারতী থেকে আসবেন স্কুলের প্রিন্সিপাল।
স্কুলের উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে আরএসএস নেতৃত্বের পাশাপাশি হাজির থাকার কথা বিজেপির নেতাদেরও।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us