সিএএ, এনআরসি, এনপিআরের বিরুদ্ধে আন্দোলন, অনশন ১০১ বছরের দোরেস্বামীর, জানালেন, দেশের ধর্মনিরপেক্ষতার মর্যাদা অক্ষুণ্ণ রাখতে হবে

বয়সের ভারে ন্যুব্জ। তবে এখনও অকুতোভয় ১০১ বছরের স্বাধীনতা সংগ্রামী হরোহাল্লি শ্রীনিবাসিয়া দোরেস্বামী। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি-র বিরোধিতায় গত ৪ জানুয়ারি বেঙ্গালুরুর ফ্রিডম পার্কে আন্দোলনে অংশ নেন। এই অশক্ত শরীরেও অনশন করেছিলেন ভারত ছাড়ো আন্দোলনে অংশ নিয়ে জেলে যাওয়া দোরেস্বামী। পরে ডাবের জল পান করে অনশন ভাঙেন। জনৈক ওয়াসিম আহমেদের ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে পোস্ট হওয়া দোরেস্বামীর ছবি ও ভিডিয়ো এই মুহূর্তে নেট দুনিয়ায় ভাইরাল।
প্রাক্তন মন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা বি জামির আহমেদের উদ্যোগে বেঙ্গালুরুর ফ্রিডম পার্কে কেন্দ্রের নয়া নাগরিকত্ব আইন, এনআরসি এবং এনপিআরের বিরোধিতায় জড়ো হন হাজার হাজার মানুষ। সেখানে উপস্থিত হন প্রবীণ স্বাধীনতা সংগ্রামী এইচ এস দোরেস্বামী। রোদে পুড়ে ১০ মিনিট ভাষণও দেন তিনি। বিজেপি সরকারের নয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করে বলেন, এই আইন পরের লোকসভা ভোটের কথা ভেবে পাশ করানো হয়েছে। তাঁর ভাষণে উঠে আসে ডিটেনশন ক্যাম্পের প্রসঙ্গ। প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে ১০১ বছরের বৃদ্ধ বলেন, সবাইকে জেলে পাঠানোর লক্ষ্য স্থির করেছেন মোদী। তাই ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরিতে ব্যস্ত তাঁরা। কিন্তু এর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়তে হবে। রুখে দিতে হবে কেন্দ্রের এই পরিকল্পনা। তিনি আরও বলেন, সরকারের পদক্ষেপ থেকে পরিষ্কার, কীভাবে খারাপ থেকে খারাপতর হচ্ছে দেশের পরিস্থিতি। আসলে এ সবই আগামী লোকসভা ভোটকে সামনে রেখে করা হচ্ছে। তাই ভোট পর্যন্ত আমাদের লড়াই চালিয়ে যেতে হবে, মন্তব্য দোরেস্বামীর। তিনি বলেন, আপনি মুসলিম নন, আমি হিন্দু নই, আমরা ভারতীয়। এই দেশ ভাগ হয়ে ভারত ও পাকিস্তান হয়েছে। পাকিস্তান হয়েছে ধর্মীয় অনুশাসনের দেশ আর ভারত ধর্মনিরপেক্ষ। তাই এ দেশের ধর্মনিরপেক্ষতার মর্যাদাকে যে কোনও মূল্যে রক্ষা করতে হবে, ঘোষণা দোরেস্বামীর।

Comments
Loading...