টাকায় লক্ষ্মী ঠাকুরের ছবি দিলে চাঙ্গা হবে অর্থনীতি! দাওয়াই বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর

টাকার দাম বাড়াতে উদ্ভট নিদান দিলেন বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তিনি জানালেন, ভারতীয় নোটে দেবী লক্ষ্মীর ছবি ছাপালেই নাকি হাল ফিরবে অর্থনীতির। বাজারে বাড়বে টাকার মূল্য।
দেশজোড়া অর্থনৈতিক মন্দার জেরে জিনিসপত্রের দাম বেড়েই চলেছে। ডিসেম্বরে মূল্যবৃদ্ধির হার হয়েছে ৭.৩৫ শতাংশ। এই অবস্থায় স্বামীর এই নিদান নিয়ে নেটিজেনদের মধ্যে নানা হাসি ঠাট্টা শুরু হয়েছে।
সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশের খান্দোয়া জেলায় স্বামী বিবেকানন্দের জন্মবার্ষিকী অনুষ্ঠানে সুব্রহ্মণ্যম স্বামী বলেন, ইন্দোনেশিয়ার মুদ্রায় গণেশ দেবতার ছবি ছাপার পর থেকেই অর্থনৈতিক সঙ্কট থেকে বেরিয়ে আসতে পেরেছে তারা। সুব্রহ্মণ্যমের কথায়, এবার ১০ হাজার টাকা নোট বেরলে তাতে লক্ষ্মীর ছবি ছাপানোর পক্ষে আমি। গণেশ দেবতাও একইভাবে বাধা কাটাতে পারে। আর এ নিয়ে কারওই খারাপ লাগার কিছু থাকবে না বলে আশাবাদী বিজেপি সাংসদ।
অর্থনীতির মন্দার জন্য দেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধির তীব্র নিন্দা করেন সুব্রহ্মণ্যম। তিনি বলেন, মানুষের মধ্যে শিক্ষা থাকলে জনসংখ্যা বৃদ্ধির মতো সমস্যা অনেকটাই মিটে যাবে। পাশাপাশি, তাঁর দাবি, হিন্দু ও মুসলিমদের ডিএনএ আসলে একই। ইন্দোনেশিয়ার মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ বিশ্বাস করেন, আমাদের পূর্বপুরুষ সবাই একই। তাহলে ভারতীয় মুসলিমদের পক্ষেও এটা বিশ্বাস করা অবাস্তব কিছু নয় বলে মন্তব্য স্বামীর।
এর আগে বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর একাধিক মন্তব্য নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। জেএনইউ-র পড়ুয়াদের বর্ধিত হস্টেল ফির বিরুদ্ধে আন্দোলনের প্রেক্ষিতে স্বামীর নিদান ছিল, কয়েক বছরের জন্য জেএনইউ বন্ধ করে দেওয়া হোক। তারপর নাম বদলে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর নামে চালু হোক বিশ্ববিদ্যালয়।

Comments
Loading...