পুরুষের কাছে প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পর মহিলারা ধর্ষণের অভিযোগ করেন, বললেন হরিয়ানার বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টার

ফের মহিলাদের প্রতি অপমানজনক মন্তব্য বিজেপি নেতা তথা হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টারের। বললেন, প্রেমিকের কাছে প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পরেই মহিলারা আঙুল তোলেন তাঁর দিকে, অভিযোগ করেন ধর্ষণের। বিজেপি নেতা এবং হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর মতে, অচেনা পুরুষ নয়, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মহিলাদের ধর্ষণের ঘটনা ঘটে পূর্ব পরিচিতদের দ্বারাই। নিজের বক্তব্যের সমর্থনে খাট্টার পরিসংখ্যানও দিয়েছেন। বলেছেন, ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রে নির্যাতিতার চেনাজানা পুরুষই ধর্ষক হয়। তাঁর এই মন্তব্য ফের মহিলাদের প্রতি বিজেপির মনোভাবই প্রকট করল বলে অভিযোগ করেছে বিরোধীরা।
রবিবার হরিয়ানায় এক সভায় এই বিতর্কিত মন্তব্য করেন খট্টার। তবে এই প্রথম নয়, এর আগে মনোহর লাল মন্তব্য করেছিলেন, ধর্ষণের জন্য দায়ী মেয়েদের পোশাক। নিদান দিয়েছিলেন, ‘সঠিক’ পোশাক পরলে এড়ানো যাবে ধর্ষণ। খট্টার ছাড়াও এর আগে একাধিকবার মহিলা নির্যাতনের ঘটনা সামনে এলেই ঘুরিয়ে ফিরিয়ে নির্যাতিতা মহিলাকেই প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে দায়ী করার ঘটনাও নতুন নয়। বিভিন্ন সময় একাধিক রাজনৈতিক নেতা এমন মন্তব্য করেছেন। সমাজবাদী পার্টির নেতা মুলায়ম সিংহ যাদব মন্তব্য করেছিলেন, ধর্ষণ আসলে ‘ম্যান মেক মিস্টেক’। আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত আবার মনে করেন, নগরায়ন একটা বড় কারণ ধর্ষণের। গ্রাম্য এলাকাগুলিতে নাকি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে না।
প্রশ্ন উঠছে, এই একুশ শতকে যেখানে প্রধানমন্ত্রী ‘ডিজিটাল ইন্ডিয়া’ নিয়ে সরব, ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’ বলে স্লোগান দিচ্ছেন, সেখানে তাঁর দলের নেতা-মন্ত্রীদের বারবার মহিলাদের প্রতি এমন ভাবনা ও তার বহিঃপ্রকাশ আদতে মহিলাদের প্রতি তাঁদের মধ্যযুগীয় মনোভাবকেই কি প্রকাশ করছে না? নেতা-মন্ত্রীদের বারবার ধর্ষণ নিয়ে মহিলাদের প্রতি এমন কুরুচিপূর্ণ এবং তির্যক মন্তব্য কি আসলে ধর্ষকদের আড়াল করছে না?

Comments
Loading...