আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংহের অন্তর্বর্তী রক্ষাকবচ, ১৯ শে অগাস্ট পর্যন্ত কোনও দমনমূলক পদক্ষেপ নয়, সিবিআইকে নির্দেশ বম্বে হাইকোর্টের

বম্বে হাইকোর্টের রায়ে আপাতত স্বস্তি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী দম্পতি আনন্দ গ্রোভার ও ইন্দিরা জয়সিংহের। বৃহস্পতিবার বম্বে হাইকোর্টের বিচারপতি রঞ্জিত মোরে ও বিচারপতি ভারতী ডাঙরের ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী দম্পতির বিরুদ্ধে ১৯ শে অগাস্ট পর্যন্ত কোনও দমনমূলক পদক্ষেপ করতে পারবে না সিবিআই। সেদিনই মামলার পরবর্তী শুনানি।
আইনজীবী দম্পতি ও তাঁদের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘লইয়ার্স কালেক্টিভ’ এর বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে গত ১১ জুলাই ভোরে দিল্লির বাসভবনে তল্লাশি চালায় সিবিআই।  তল্লাশি অভিযান চলে তাঁদের দিল্লি ও মুম্বইয়ের অফিসেও।
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অভিযোগের ভিত্তিতে কিছুদিন আগেই এফআইআর দায়ের করেছিল সিবিআই। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী দম্পতির বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁদের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘লইয়ার্স কালেক্টিভ’ ২০০৬ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ৩২ কোটি ৩৯ লক্ষ টাকা বিদেশি অনুদান পায়। সেই অনুদানের অপব্যবহার করে রাজনৈতিক কাজে ব্যবহার করা হয়।
সেই সঙ্গে আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংহের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত তিনি অ্যাডিশনাল সলিসিটর জেনারেল থাকাকালীন একাধিকবার স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার টাকায় বিদেশ ভ্রমণ করেছেন। অভিযোগ, সে সময় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অনুমতির কোনও তোয়াক্কা করেননি আইনজীবী ইন্দিরা। ২০১০ সাল নাগাদ বিষয়টি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নজরে আসে বলে সিবিআই সূত্রে খবর। কিন্তু সে সময়ে এফআইআরে আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংহের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ করেনি কেন্দ্রীয় সংস্থা। কিন্তু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক পরে আর্থিক দুর্নীতিতে তাঁকেও অভিযুক্ত করে।
এই প্রেক্ষিতে কয়েকদিন আগে আইনজীবী দম্পতির বাড়ি ও অফিসে তল্লাশি চালায় সিবিআই। যদিও আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংহ ও আনন্দ গ্রোভার এবং তাঁদের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘লইয়ার্স কালেক্টিভ’ এক প্রেস বিবৃতি দিয়ে এই সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দেয়। মানবাধিকার নিয়ে লড়াই করা লইয়ার্স কালেক্টিভের তরফে পাল্টা অভিযোগ করা হয়, সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্পর্শকাতর মামলা সামনে আনার জেরে প্রতিহিংসাবশতঃ এই কাজ করা হয়েছে। সিবিআইয়ের এফআইআরকে চ্যালেঞ্জ করে বম্বে হাইকোর্টে মামলা করে ইন্দিরা জয়সিংহ ও আনন্দ গ্রোভারের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। বম্বে হাইকোর্টে জমা দেওয়া লইয়ার্স কালেক্টিভের হলফনামার প্রেক্ষিতে সিবিআইয়ের প্রতিক্রিয়া চেয়েছে বিচারপতি রঞ্জিত মোরের ডিভিশন বেঞ্চ।

Comments
Loading...