২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল কি গড়াপেটা? শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রীর অভিযোগের জেরে তদন্ত কমিশন সে দেশে

২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল কি শ্রীলঙ্কা বিক্রি করে দিয়েছিল? ২৮ বছর বাদে ওয়ান ডে ক্রিকেটে ভারতের বিশ্বজয় কি কলঙ্কিত? সেদিন ওয়াংখেড়েতে কি গড়াপেটা হয়েছিল?
শ্রীলঙ্কার তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রীর দাবি ঘিরে তোলপাড় ক্রিকেট দুনিয়া। মাহিন্দানন্দা আলুথগামাগে অভিযোগ করেছিলেন, ভারতের বিরুদ্ধে ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচে গড়াপেটা হয়েছিল। এবার প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার তদন্তের নির্দেশ দিল শ্রীলঙ্কার ক্রীড়া বিভাগ। শ্রীলঙ্কার বর্তমান ক্রীড়ামন্ত্রী দালাস আলাহপ্পেরুমা নির্দেশিকায় জানিয়েছেন, তদন্তের গতিপ্রকৃতি জানাতে দু’সপ্তাহ পরপর অন্তর্বতী রিপোর্ট দিতে হবে সরকারের কাছে।
কয়েকদিন আগেই স্থানীয় টিভি চ্যানেল সিরাসায় শ্রীলঙ্কার তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বর্তমান মন্ত্রী মাহিন্দানন্দা আলুথগামাগে অভিযোগ করেছিলেন, তিনি ক্রীড়ামন্ত্রী থাকাকালীন ২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল বিক্রি করে দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। কোনও প্লেয়ারের নাম তিনি নেননি, কিন্তু দাবি করেছিলেন কিছু মানুষ এই চক্রান্তের সঙ্গে যুক্ত।
আলুথগামাগের এই বিস্ফোরক দাবিতে ক্রিকেটবিশ্বে তোলপাড় পড়ে যায়। মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ছয় মেরে ভারতকে প্রায় ৩ দশক বাদে বিশ্বকাপ জেতান। দুর্ধর্ষ ব্যাটিং করেছিলেন গৌতম গম্ভীরও। তাই দ্রুত শচীন আউট হয়ে গেলেও, শ্রীলঙ্কার ২৭৫ রান তাড়া করে বিশ্ব সেরা হতে সমস্যা হয়নি টিম ইন্ডিয়ার। কিন্তু তা কি আসলে ছিল গড়াপেটা?
২০১১ সালে শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রকের দায়িত্ব সামলানো আলুথগামাগের চাঞ্চল্যকর দাবিকে যদিও উড়িয়ে দিয়েছেন সেই ম্যাচে খেলা দুই শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি মাহেলা জয়বর্ধনে এবং কুমারা সঙ্গকারা। তাঁরা দু’জনেই প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রীর কাছে এই অভিযোগের প্রমাণ দাবি করেছেন।

অবশ্য এই প্রথম নয়। এর আগে শ্রীলঙ্কার একমাত্র বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক অর্জুনা রণতুঙ্গাও কার্যত এক অভিযোগ করেছিলেন। তদন্তের দাবিও জানিয়েছিলেন। তারপর ফের একই দাবি করলেন শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী এবং সেই দাবির সত্যতা খতিয়ে দেখতে তদন্তের নির্দেশ দিল শ্রীলঙ্কার সরকার।

Comments
Loading...