৪০০ কোটি টাকা লোন নিয়ে দেশ ছেড়ে পলাতক আরও এক ঋণখেলাপি! ৪ বছর বাদে সিবিআই-এ অভিযোগ করল এসবিআই

ফের ঋণখেলাপি করে দেশ ছেড়ে পালানোর অভিযোগ। প্রায় ৪০০ কোটি টাকা ঋণ শোধ না করে দেশ ছেড়ে পালানোর অভিযোগে দিল্লির এক সংস্থার বিরুদ্ধে সিবিআই-এর কাছে অভিযোগ জানাল স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া।
তবে এখন নয়, ৪ বছর আগেই অভিযুক্তরা ঋনখেলাপি দেশ ছাড়েন বলে খবর। যদিও এত বছর বাদে ওই ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে সিবিআই-এর কাছে অভিযোগ দায়ের করেছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (SBI)।
এসবিআই-সহ মোট ছয়টি ব্যাঙ্ক থেকে ৪০০ কোটি টাকার ঋণ নেন দিল্লির বাসমতী চালের বিনিয়োগকারী সংস্থা রামদেব ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের মালিক। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি ওই সংস্থার মালিকদের বিরুদ্ধে সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনের (CBI) কাছে অভিযোগ দায়ের করে এসবিআই। গত ২৮ এপ্রিল ওই কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে সিবিআই। কিন্তু ২০১৬ সাল থেকেই সংস্থার মালিকরা ফেরার বলে জানা যায়।
২০১৬ সালে রামদেব ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডকে নন-পারফর্মিং অ্যাসেট হিসেবে ঘোষণা করা হয়।
রামদেব ইন্টারন্যাশনাল নামে সংস্থাটি মোট ৪১৪ কোটি টাকা ব্যাঙ্ক ঋণ নেয় বলে খবর। এসবিআই- এর কাছ থেকে ১৭৩.১১ কোটি, কানাড়া ব্যাঙ্ক থেকে ৭৬.০৯ কোটি টাকা, ইউনিয়ন ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া থেকে ৫৪.৩১ কোটি টাকা, কর্পোরেশন ব্যাঙ্ক থেকে ৩৬.৯১ কোটি এবং আইডিবিআই ব্যাঙ্ক থেকে ১২.২৭ কোটি টাকা ঋণ নেয় এই কোম্পানি।
এসবিআই অভিযোগ করেছে, ২০১৬ সালে স্পেশাল অডিট করে জানা যায়, অভিযুক্তরা অ্যাকাউন্টগুলিতে মিথ্যা তথ্য দেয়, ব্যালান্স-শিট এড়িয়ে গিয়ে ব্যাঙ্কের থেকে বেআইনিভাবে লাভ নেওয়ার চেষ্টা করে।

এই অ্যাকাউন্ট নন পারফর্মিং অ্যাসেট হিসেবে গণ্য হওয়ার পর সংশ্লিষ্ট সংস্থার সম্পত্তি সম্পর্কে জানতে ২০১৬ সালের অগাস্টে এসবিআই একটি একটি যৌথ তদন্ত চালায়। তখন থেকেই এই সংস্থার মালিকদের খোঁজ পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে সিবিআই-এর কাছে অভিযোগ করেছে এসবিআই।

Comments
Loading...