কঙ্গনাকে Y প্লাস নিরাপত্তা কেন? ভালো কাজে সরকারি অর্থ খরচ করা যায় না? অমিত শাহকে বিঁধে ট্যুইট মহুয়া মৈত্রের

ট্যুইট করে সময় ব্যয় করা বলিউড অভিনেত্রীকে কেন ওয়াই প্লাস নিরাপত্তা দিয়ে অর্থের অপচয় করা হচ্ছে? বলিউড তারকা কঙ্গনা রানাউতকে ওয়াই প্লাস নিরাপত্তা দেওয়ার বিরোধিতা করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের দিকে প্রশ্ন ছুঁড়লেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র।

এই প্রথম বলিউডের কোনও তারকা ওয়াই প্লাস নিরাপত্তা পেলেন। এই মুহূর্তে দেশের প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদে এবং কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ ওয়াই প্লাস নিরাপত্তা পান। তাঁদের সঙ্গে এখন একই শ্রেণির নিরাপত্তা পাচ্ছেন অভিনেত্রী কঙ্গনা।

যা নিয়ে সোমবার দিনভর তর্ক-বিতর্ক চলে ট্যুইটার। তা নিয়ে সরব হলেন মহুয়া মৈত্রও। তিনি ট্যুইটে লেখেন, ‘‘ভারতে প্রতি এক লক্ষ জনসংখ্যার দায়িত্বে ১৩৮ জন পুলিশকর্মী। সাধারণ মানুষকে পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়ার ক্ষেত্রে বিশ্বের ৭১ টি দেশের মধ্যে নীচের দিক থেকে ভারত পঞ্চম স্থানে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে জানতে চাই, এর চেয়ে ভাল কোনও কাজে কি সরকারি অর্থ ব্যবহার করা যেত না?’’

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের অস্বাভাবিক মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বলিউডে প্রথম সারির অভিনেতা, পরিচালক এবং প্রযোজকদের লাগাতার আক্রমণ করে আসছেন কঙ্গনা। এদিকে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে নেমে মাদক চক্রের যোগসূত্র পেয়েছেন তদন্তকারীরা। যার প্রেক্ষিতে বলিউডের একাধিক সেলেব মাদক চক্রের সঙ্গে জড়িত বলে তোপ দাগেন কঙ্গনা রানাউত। পাশাপাশি মহারাষ্ট্র সরকার ও পুলিশের বিরুদ্ধেও ট্যুইটারে নানা অভিযোগ করেন তিনি বলে অভিযোগ।

মুম্বইকে পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করেন কঙ্গনা। মুম্বইতে তালিবান সাম্রাজ্য চলছে বলেও কটাক্ষ করেন তিনি। পাশাপাশি ৯ সেপ্টেম্বর তিনি মুম্বইতে হাজির হচ্ছেন। কারও ক্ষমতা থাকলে যেন তাঁকে আটকানো হয় বলে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন কঙ্গনা। একই সঙ্গে তাঁর ক্ষতির চক্রান্ত হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন কঙ্গনা। অভিনেত্রীর মন্তব্যের প্রেক্ষিতে তীব্র প্রতিক্রিয়া দিয়েছে শিবসেনা। এরপরই কঙ্গনার নিরাপত্তার দাবি করে হিমাচল প্রদেশে সরকারের কাছে আবেদন করে তাঁর পরিবার। পত্রপাঠ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে Y+ ক্যাটাগরির নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়।যার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে এবার প্রশ্ন তুললেন কৃষ্ণনগরের তৃণমূল সাংসদ। মহুয়ার ট্যুইটের সমর্থনে আরও বহু বিশিষ্টজন ট্যুইট করেন। বিজেপি-ঘনিষ্ঠ বলেই কঙ্গনাকে অপ্রয়োজনীয়ভাবে নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিরোধীরা।

Comments
Loading...