মোবাইল অ্যাপেই জানা যাবে রক্তে ম্যালেরিয়ার অস্তিত্ব, নেপথ্যে কলকাতার চার অধ্যাপিকা ও ছাত্র-ছাত্রী।

কারও দেহে ম্যালেরিয়া জীবাণু আছে কিনা এখন থেকে মাত্র কয়েক সেকেন্ডেই জানা যাবে মোবাইল ফোন অ্যাপে। মোবাইল ফোনের বিশেষ ডিভাইস বা একটি সুপার চিপের মাধ্যমে। পাশাপাশি কোনও একটি এলাকায় ম্যালেরিয়া জীবাণু কতটা ছড়াচ্ছে সে সম্পর্কিত সমস্ত তথ্যও সংগ্রহ করে রাখতে পারবে মোবাইলের নতুন ‘সুপার-চিপ’। সম্প্রতি এমনই এক ‘সুপার চিপ’ তৈরি করেছেন কলকাতার ইন্সষ্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যানেজমেন্টের (আইইএম) এক অধ্যাপিকা এবং তিন পড়ুয়া। তাঁরা হলেন অধ্যাপিকা নীলাঞ্জনা দত্ত রায় এবং তিন ছাত্র-ছাত্রী নীলাঞ্জন দাঁ, দেবপ্রিয়া পাল এবং শিবপুর বেসুর অরিন্দম বিশ্বাস।
গবেষণার সঙ্গে যুক্ত অধ্যাপিকা এবং ছাত্র-ছাত্রীরা জানিয়েছেন, মূলত যাঁরা গ্রামাঞ্চলে ডেঙ্গি কিংবা ম্যালেরিয়া নির্ধারণ ও তার প্রতিকারের কাজ করে থাকেন তাঁদের অনেক ক্ষেত্রেই নানান প্রতিবন্ধকতার সন্মুখীন হতে হয়। সে ক্ষেত্রে এই বিশেষ মোবাইল প্রযুক্তি সহজেই মানব-রক্তে ম্যালেরিয়ার উপস্থিতি শনাক্ত করতে পারবে। অ্যাপের মাধ্যমে ম্যালেরিয়ার জীবাণুর গতিপ্রকৃতি ধরা পড়বে। পাশাপাশি, গ্রামবাসীরা খুবই কম খরচে, মাত্র দশ টাকার বিনিময়ে ম্যালেরিয়া পরীক্ষা করতে পারবেন, এবং রিপোর্টও পাবেন।

নীলাঞ্জনা দত্ত রায়

কলকাতার ইন্সষ্টটিউট অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্টের অধ্যাপিকা নীলাঞ্জনা দত্ত রায় thebengalstory.com কে জানান, তাঁরা এমন একটি পদ্ধতি আবিষ্কার করেছেন যেখানে, ক্যামেরা যুক্ত যে কোনও স্মার্ট ফোনের মাধ্যমে রক্তে ম্যালারিয়ার জীবাণু রয়েছে কিনা জানা যাবে। পাশাপাশি প্যারাসাইট যুক্ত বিভিন্ন রোগ শনাক্তকরণও সম্ভব। ম্যালেরিয়ার বিভিন্ন ‘স্টেজ’ থাকার জন্য অনেক সময়ই হাসপাতালের ল্যাবরেটরিতে সঠিক ভাবে তা নির্ধারণ করা যায় না। মোবাইলের মাধ্যমে ম্যালেরিয়া এবং ম্যালেরিয়ার চরিত্র শনাক্তকরণে প্রায় ৯৮ শতাংশ সাফল্য পাওয়া সম্ভব বলে তাঁর দাবি।
ইন্সষ্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যানেজমেন্টের এই গবেষণায় ইতিমধ্যে হাত বাড়িয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। গবেষকদের বক্তব্য, এই পরীক্ষার জন্য ‘ফোল্ডস্কোপ’ নামে একটি যন্ত্রের প্রয়োজন, যার দামও বেশি নয়। প্রথমে স্মার্ট ফোনে অ্যাপ ডাউনলোড করে তারপর একটি স্লাইডে রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে ‘ফোল্ডস্কোপ’ যন্ত্রের নীচে ঠিকভাবে বসাতে হবে। স্লাইডসহ রক্তের নমুনাটি তুলে ধরতে হবে মোবাইল ক্যামেরার সামনে। তারপর অ্যাপটি অন করে নির্দিষ্ট কিছু তথ্য দিতে হবে। এরপর অ্যাপটি ক্যামেরায় তোলা রক্তের নমুনাটি পাঠিয়ে দেবে নির্দিষ্ট সার্ভারে। মাত্র ১০ সেকেন্ডের মধ্যে মোবাইল স্ক্রিনে দেখা যাবে রক্ত পরীক্ষার ফলাফল। জানা গিয়েছে, ‘ফোল্ডস্কোপ’ মাইক্রোস্কোপ দিয়ে এক হাজারবার রক্ত পরীক্ষা সম্ভব। এই গবেষক দলের প্রধান নীলাঞ্জনা দত্ত  রায় জানান, ইতিমধ্যে তাঁরা গবেষণার কাজ কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের কাছে তুলে ধরেছেন। আগামী দিনে ম্যালেরিয়ার পাশাপাশি ডেঙ্গিসহ অন্যান্য রোগ নিরাময়ের জন্যও তাঁরা কাজ করতে চান বলে জানিয়েছেন।

Comments
Loading...